শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯

ফটিকছড়ি মাইজভান্ডারের কর্তৃত্ব নিয়ে দু’পক্ষে সংঘর্ষ, আহত ১০

SONALISOMOY.COM
ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৬

bandariচট্টগ্রাম : ফটিকছড়ি উপজেলার মাইজভান্ডার দরবার শরীফের কর্তৃত্ব নিয়ে বিরোধের জের ধরে মাওলানা সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী’র ওরশে তাঁর দুই ছেলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এসময় মাজারে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয়।

বুধবার রাত ৮টার দিকে মাওলানা সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী’র মাজার প্রাঙ্গনে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

ফটিকছড়ি থানার ওসি মফিজ উদ্দিন বাংলামেইলকে বলেন, ‘মাজারে ওরশ পালন করা নিয়ে দু’পক্ষে সংঘর্ষ হয়েছে। পুলিশ এসে পরিস্থিতে নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। এখনো বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছে না।’

প্রতক্ষ্যদর্শী সূত্র জানায়, বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) ছিলো মাওলানা সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী’র ৭৯তম খোশরোজ (ওরশ) শরীফ। যেখানে হাজার হাজার আশেক-ভক্ত অংশ নেন। তবে এর আগ থেকে মাজারের কর্তৃত্ব নিয়ে মঈনুদ্দিন আল হাসানী’র দুই ছেলে সাইফুদ্দীন আহমেদ ও শহীদ উদ্দিন আহমদের মধ্যে বিরোধ চলছিলো। বুধবার ছোট ছেলে শহীদ উদ্দিন আহমেদ সমর্থকদের নিয়ে বাবার মাজারে জেয়ারত করতে যান।

এ সময় বড় ছেলে সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমেদের সমর্থকরা তাঁদের বাধা দিলে দু’পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। হামলার সময় রওজা শরীফের গ্রিল ও কাঁচ ভাঙচুর করা হয়, এসময় মাজারের মূল্যবান গিলাফ ছিঁড়ে ফেলা হয়।