বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯

পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ না পাওয়ায় কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

SONALISOMOY.COM
ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৬

attohotta
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইন্টারমেডিয়েট পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ না পাওয়ায় আত্মহত্যা করেছেন এক পাক তরুণী। ১৭ বছরের ওই ছাত্রীর নাম সাকিবা কাকার। শুক্রবার পাকিস্তানের বেলুচিস্তান রাজ্যের কিল্লাল সাইফুল্লাহ জেলায় ওই আত্মহননের ঘটনা ঘটে বলে ডন পত্রিকা জানিয়েছে। এ ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী নওয়াব সানাউল্লাহ।

সাকিবা ওই রাজ্যের মুসলিম বাগ এলাকার গভার্নমেন্ট গার্লস ডিগ্রি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। কলেজে কোনো মেয়ে শিক্ষক না থাকায় ছাত্রীদের ক্লাস বাতিল ঘোষণা করেছিলেন প্রিন্সিপ্যাল আবিদা গাউস। যদিও কলেজের ছাত্রীরা ছেলে শিক্ষকের কাছেই পড়তে রাজি ছিলেন।

প্রিন্সিপ্যালের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গতবছর কোয়েটা প্রেসক্লাবের বাইরে বিক্ষোভ সাকিবাসহ আরো ১৩ জন ছাত্রী। দীর্ঘ ছয় মাস ধরে চলে তাদের ওই আন্দোলন। কিন্তু টনক নড়েনি কলেজ কর্তৃপক্ষের। উপরন্তু শিক্ষা অধিকারের জন্য আন্দোলন করায় এ বছরের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় ওই ছাত্রীদের অংশগ্রহণ করতে না দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ। লিখিতভাব ক্ষমা চাওয়ার পর সাকিবা ছাড়া বাকিদের পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার অনুমতি দিতে রাজি হন প্রিন্সিপাল আবিদা। এই দুঃখে শুক্রবার আত্মহত্যা করেন সাকিবা।

এদিকে বোনের আত্মহত্যার জন্য প্রিন্সিপাল প্রসঙ্গে তার ভাই আজিজুল্লাহ বলেছেন, কলেজের প্রিন্সিপালের কারণেই আমার বোন আত্মহত্যা করেছে।’

ফেব্রুয়ারির ১০ তারিখে ছিল পরীক্ষার ফরম পূরণের শেষ দিন। সাবিহা বার বার অনুরোধ করা সত্ত্বেও তাকে ফরম পূরণ করতে দিতে রাজি হননি প্রিন্সিপাল। এতে হতাশ হয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন তিনি।