বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯

হয়তো এটাই শেষ নির্বাচন: এরশাদ

SONALISOMOY.COM
জানুয়ারি ১, ২০১৭
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, তাঁর জীবনের শেষ চাওয়া জাতীয় পার্টিকে আর একবার ক্ষমতায় নেওয়া। তিনি দলের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমি জীবনের শেষ প্রান্তে এসে পৌঁছেছি। হয়তো এটাই (২০১৯) শেষ নির্বাচন। আমি তোমাদের মাঝে থাকতে চাই। আমাকে বাঁচাতে হলে জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় আনতে হবে।’

আজ রোববার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাপার মহাসমাবেশে এসব কথা বলেন এইচ এম এরশাদ। জাপার ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ মহাসমাবেশের আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এইচ এম এরশাদ বলেন, ‘অনেকের মনে প্রশ্ন জাগে, ক্ষমতায় গেলে আমরা কী দেব, কী করব। আমাদের প্রথম কাজ হবে প্রাদেশিক সরকার প্রতিষ্ঠা করা। বর্তমান পদ্ধতির সরকারব্যবস্থায় আমরা নিষ্পেষিত হয়েছি। সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আমরা ক্ষমতায় গেলে বর্তমান নির্বাচন পদ্ধতির পরিবর্তন করব। পূর্ণাঙ্গ উপজেলাব্যবস্থা চালু করব। কারণ, উপজেলা চেয়ারম্যানদের কোনো ক্ষমতা নেই। সব ক্ষমতা আমলা-ইউএনওদের।’

এইচ এম এরশাদ বলেন, ‘ক্ষমতায় গেলে বিচারব্যবস্থা জনগণের কাছে নিয়ে যাব। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দেব, কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করব। জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় গেলে বিদেশেরও দরজা খুলে যাবে। প্রত্যেক উপজেলায় গুচ্ছগ্রাম করব।’

এরশাদ বলেন, ‘আজকে সংখ্যালঘুরা কেন নিগৃহীত, পাদরিকে কেন মেরে ফেলা হচ্ছে। হিন্দুদের জমি-ঘর কেন দখল করা হচ্ছে। আমরা যদি ক্ষমতায় যেতে পারি, সংখ্যালঘুদের জন্য উচ্চশিক্ষা, চাকরি এবং সংসদে প্রতিনিধিত্ব থাকবে।’

নেতা-কর্মীদের এরশাদ বলেন, ‘ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য শক্তি প্রয়োজন। দলকে শক্তিশালী করো। ক্ষমতায় দুয়ারে আমরা অবশ্যই পৌঁছাব। আমরা এককভাবে তিনটি নির্বাচন করে বেশি আসন পেয়েছি। জোটগত নির্বাচন করে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। এবার আমরা এককভাবে নির্বাচন করব।’

সমাবেশে জাপা মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, ‘আমরা আর সন্ত্রাস সংঘাত চাই না, শান্তি চাই। সবাই মিলেমিশে এ দেশকে গড়তে চাই।’

এইচ এম এরশাদ সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, কাজী ফিরোজ রশীদ, ফখরুল ইমাম, এস এম ফয়শাল চিশতীসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা।