বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯

পুতিনের নির্দেশেই হ্যাক

SONALISOMOY.COM
জানুয়ারি ৬, ২০১৭
news-image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক জেমস ক্ল্যাপার দাবি করেছেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনই মার্কিন নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির কম্পিউটার হ্যাক করার নির্দেশ দিয়েছিলেন।  বৃহস্পতিবার সিনেটে শুনানিতে তিনি এ দাবি করেন।

মার্কিন শীর্ষ এ গোয়েন্দা কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পুতিন কেন এ নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করেছিলেন, সে বিষয়ে বিস্তারিত আগামী সপ্তাহেই প্রকাশিত হবে।

গত বছরের নভেম্বরে শেষ হওয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের অভিযোগকে কেন্দ্র করে ওবামা প্রশাসন সম্প্রতি মস্কোর ৩৫ জন কূটনীতিককে যুক্তরাষ্ট্র থেকে বহিষ্কারের নির্দেশ দিয়েছে। এছাড়া রাশিয়ার ওপর নতুন করে কিছু নিষেধাজ্ঞাও জারি করা হয়েছে। রাশিয়া অবশ্য প্রথম থেকেই হ্যাকিংয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

কংগ্রেস সদস্যরা জেমস ক্ল্যাপারের কাছে জানতে চান, তিনি কি বিষয়টিতে ‘পুতিনের প্ররোচনা ছিল’ বলতে চান কি না। জবাবে তিনি বলেন, ‘ হ্যা, আমরা একে প্ররোচনা হিসেবেই বর্ণনা করব।’

মার্কিন নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারে রাশিয়া বহুমুখী প্রচারণা চালিয়েছে বলেও দাবি করেন ক্ল্যাপার। এর মধ্যে রয়েছে, অপপ্রচার, ভুল তথ্য দেয়া, এবং ভূয়া সংবাদ প্রচার।

শুনানিতে জেমস ক্ল্যাপার ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থার প্রধান মাইকেল রজার্স এবং প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা দপ্তরের আন্ডার সেক্রেটারি মারসেল লেট্রে অংশ নেন।

গোয়েন্দাপ্রধানরা এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ‘আমরা নির্ণয় করেছি, নির্বাচন সামনে রেখে তথ্য চুরি এবং প্রকাশের নির্দেশ একমাত্র রাশিয়ার শীর্ষ কর্তৃপক্ষই দিতে পারে।’

তারা বলেন, প্রযুক্তিতে রাশিয়ার যে দক্ষতা, তা যুক্তরাষ্ট্রের সরকার, সামরিক বাহিনী, কূটনীতি, বাণিজ্যিক ও স্পর্শকাতর অবকাঠামো এবং অন্য মুখ্য বিষয়গুলোর জন্য হুমকি।