মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসীর তালিকায় বিন লাদেনের ছেলে

SONALISOMOY.COM
জানুয়ারি ৬, ২০১৭
news-image

অনলাইন ডেস্ক:
সন্ত্রাসী সংগঠন আল-কায়েদার প্রতিষ্ঠাতা ওসামা বিন লাদেনের এক ছেলে হামজা বিন লাদেনকে আনুষ্ঠানিকভাবে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসীর তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

বিবিসি বলছে, হামজার বর্তমান বয়স বিশের কোটায়। ২০১৫ সালে তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে আল-কায়েদার সদস্য ঘোষণা করা হয়।

তাকে তার পিতা বিন লাদেনের উত্তরসূরি হিসেবে দেখা হচ্ছে।

আল-কায়েদার সদস্য ঘোষণার পর থেকে তিনি পশ্চিমা রাজধানীগুলোতে হামলার ডাক দিয়ে আসছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র বিভাগ জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এটাই স্মরণ করিয়ে দেওয়া যে, “হামজা বিন লাদেন সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে সক্রিয়ভাবে জড়িয়ে গেছেন।”

সন্ত্রাসীর তালিকাভুক্ত হওয়ার কারণে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের কোনো কোম্পানির সঙ্গে ব্যবসা করতে পারবেন না এবং যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে কোনো সম্পদ রাখতে পারবেন না।

২০১১ সালে পাকিস্তানের সামরিক শহর অ্যাবোটাবাদে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযানে ওবামা বিন লাদেন নিহত হন। ফাইলছবি: রয়টার্স

২০১১ সালে পাকিস্তানের সামরিক শহর অ্যাবোটাবাদে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযানে ওবামা বিন লাদেন নিহত হন। ফাইলছবি: রয়টার্স
বিন লাদেন ও তার এক স্ত্রী খাইরিয়াহ সাবারের ছেলে হামজা। ২০১১ সালে পাকিস্তানের সামরিক শহর অ্যাবোটাবাদে বিন লাদেনের বিরুদ্ধ যুক্তরাষ্ট্রের অভিযানে সাবার ধরা পড়েন।

ওই অভিযানে ওবামা বিন লাদেন নিহত হন। তবে ওই সময় হামজা সেখানে ছিলেন না।

বিন লাদেন নিহত হওয়ার পর মিশরীয় চক্ষু চিকিৎসক আয়মান আল-জাওয়াহিরি আল-কায়েদার দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

২০১৫ সালে  হামজার পক্ষ থেকে আল-কায়েদা একটি অডিওবার্তা প্রকাশ করে। ওই বার্তায় তিনি অনুসারীদের কাবুল, বাগদাদ এবং গাজায় লড়াই এবং ওয়াশিংটন, লন্ডন, প্যারিস ও তেল আবিবে জিহাদের ডাক দেন।