সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটিতে বাংলাদেশে ইংরেজী উচ্চারণ শিক্ষাঃ সমস্যা ও অনুশীলন শীর্ষক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

SONALISOMOY.COM
জানুয়ারি ১৫, ২০১৭
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বিশুদ্ধ ইংজেী উচ্চারণ শিক্ষাকে ইংরেজীভাষা শিক্ষা কোর্সের অংশ হিসেবে অধিকতর গুরুত্ব দেয়ার এবং একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ও আন্তজাতিক চাকরী বাজারের উপযোগী হিসেবে শিক্ষার্থীদের গড়ে তুলতে এবং উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে এর সঠিক ব্যবহার ও চর্চার উপর বক্তারা গুরুত্ব আরোপ করেছেন। এ ক্ষেত্রে বক্তারা সুসংগঠিত, পদ্ধতি ও  রীতিগত  ইংরেজী উচ্চারণ কোর্সসমূহ প্রণয়ণ ও প্রশিক্ষত দক্ষ শিক্ষকদের প্রয়োজনীয়তার উপরও গুরুত্ব আরোপ করেন।
ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজী বিভাগের আয়োজনে “বাংলাদেশে ইংরেজী উচ্চারণ শিক্ষাঃ সমস্যা ও অনুশীলন” শীর্ষক আন্তর্জাতিক সিম্পোজিয়ামে বক্তারা এসব কথা বলেন।   গতকাল জানুয়ারি ১৪, ২০১৭ তারিখে বিশ্ববিদ্যালয় মিলনায়তনে  এ সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক ইউনিভার্সিটি কুষ্টিয়ার উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ আসকারী। সম্মানিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এন.সি.টি.বি’র সদস্য (কারিকুলাম) প্রফেসর মহসিউজ্জামান। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. ইউসুফ এম. ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর এ. এম. এম. হামিদুর রহমান।
আই. এম. এল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী ভাষা এবং প্রশিক্ষক বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ড. আরিফা রহমান ‘‘ইংলিশ প্রনানসিয়েশন এন্ড গ্লোবাল ইন্টেলিজিবিলিটি” বালাদেশে ইংরেজী উচ্চারণ শিক্ষার গুরুত্ব এবং প্রয়োজনীয়তা শীর্ষক মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এ সময় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যলয়ের উপাচার্যগণ উপস্থিত ছিলেন। এই পর্বটির সভাপতিত্ব এবং সঞ্চলনা করেন যথাক্রমে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. ইউসুফ এম. ইসলাম এবং ইংরেজী বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ শামসুল হক। পরে ভারতের কে. আই.আই.টি’র ড. কয়েস খান ‘‘ভারতের শিক্ষার্থীদের ইংরেজী উচ্চারণ শিক্ষাঃ ভূবনেশ্বর ইংরেজী উচ্চারণ প্রশিক্ষকদের অভিজ্ঞতা” শীর্ষক বক্তব্য প্রদান করেন।
দিনব্যাপি সম্মেলনে একই সাথে ৬টি পেপার প্রেজেন্টেশন পর্ব এবং কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয় যেখানে ভারত, শ্রীলংকা, তুরুষ্ক এবং বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২২ জন বক্তা অংশগ্রহণ করে। বিকালে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি শিক্ষক- শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে একটি মজাদার নাট্য পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
সমাপনী অনুষ্ঠানে বি.ইএল.টি.এ’র সভাপতি হারুনুর রশিদ খানের সভাপতিত্বে এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ইংরেজী বিভাগের প্রধান ড. মোঃ মহসিন রেজার সঞ্চলনায় ‘‘বাংলাদেশে উচ্চারণ শিক্ষা” শীর্ষক একটি পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। এতে অন্যান্যের মধ্যে অংশগ্রহণ করেন আই.এম.এল., ঢাকা বিশ্ববদ্যালয়ের প্রফেসর ইফাত আরা নাসরিন মজিদ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. এম শহীদুল্লাহ, বাংলাদেশ উন্মক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর এম. কামসুল হক, সেন্ট্রাল উইমেন্স ইউনিভার্সিটির প্রফেসর আবদুস সেলিম, সাউথ ইষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় এবংবি.ই.এল.টি. এ এর সভাপতি প্রফেসর হারুনুর রশিদ খান এবং এন.সি.টি.বি’র গৌতম রায়। বক্তরা বাংলাদেশে ইংরেজী উচ্চারণের বিভিন্ন সমস্যা ও সমাধান সম্পর্কে আলোকপাত করেন। সমন্বয়ক ড. বিনয় বর্মণের সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে সিম্পোজিয়ামের সফলসমাপ্তি ঘটে। দিনব্যাপি অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রচুর সংখ্যক অংশগ্রহণকারী উপস্থিত ছিলেন।