মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯

ট্রাম্পবিরোধী ‘সিস্টার্স মার্চ’ : ওয়াশিংটন থেকে অ্যানটার্কটিকা

SONALISOMOY.COM
জানুয়ারি ২২, ২০১৭
news-image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে নারীরা প্রতিবাদ করেছেন। ওয়াশিংটন থেকে বরফের মহাদেশ অ্যানটার্কটিকা পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে এ বিক্ষোভ।

ট্রাম্পবিরোধী নারীদের এই বিক্ষোভ ‘সিস্টার্স মার্চ’ হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠেছে। ওয়াশিংটনের সিস্টার্স মার্চের সমর্থনে একই দাবিতে বিশ্বজুড়ে বিক্ষোভ ফুঁসে উঠেছে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অধীনে নারী অধিকার, অভিবাসী বিতাড়ন, স্বাস্থ্যবিমা বাতিলসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে নাগরিক অধিকার হরণ ও মুসলিমবিদ্বেষসহ বর্ণবাদ ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থেকে প্রতিবাদে নেমেছেন নারীরা। ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো একজন বিতর্কিত লোক প্রেসিডেন্ট হওয়ার প্রতিবাদেও অনেকে রাস্তায় নেমেছেন।

ট্রাম্পের শপথ অনুষ্ঠানের চেয়েও বেশি মানুষ তার বিরুদ্ধে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন। অভিষেকের দিন ওয়াশিংটনে প্রায় ১০ লাখ মানুষ বিক্ষোভ করে। পরের দিন ওয়াশিংটনে প্রায় ৫ লাখ নারী বিক্ষোভে অংশ নেন। যদিও বিক্ষোভকারীদের সংখ্যা নিয়ে একেক গণমাধ্যমে একেক ধরনের তথ্য দেওয়া হয়েছে, তবু এটি নিশ্চিত বিক্ষোভে কয়েক লাখ মানুষ যোগ দিয়েছেন।

কংগ্রেসের সদস্য থেকে বিশ্বখ্যাত অভিনেতা ও সংগীতশিল্পী ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভে সংহতি প্রকাশ করেছেন। শনিবার হঠাৎ করে বিক্ষোভে অংশ নেন জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ম্যাডোনা।

হোয়াইট হাউসের রাস্তায় লাখো মানুষের প্রতিবাদে বক্তব্য রাখেন চলচ্চিত্র নির্মাতা মাইকেল মুর, নারীবাদী আন্দোলনের নেতা গ্লোরিয়া স্টেইনেম, শিল্পী অ্যালিসিয়া কিসসহ অধিকার আন্দোলনের অনেকে।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক, লস অ্যাঞ্জেলেস, বোস্টন, হিউস্টন, আটলান্টাসহ ছোট-বড় শহরে বিক্ষোভ করেছেন নারীরা। এই বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বজুড়ে।

অ্যানটার্কটিকায় বিক্ষোভ
ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ হচ্ছে বিশ্বের অনেক শহরে। লন্ডন, মস্কো, তেল আবিব, মেলবোর্ন, প্রিস্টিনিয়া, বার্লিন, মস্কো সিটি, অ্যাথেন্স, প্যারিস, নয়াদিল্লিসহ বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ চলছে।

তবে সবচেয়ে বড় বিষয় হলো- এই বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে অ্যানটার্কটিকায়। পরিবেশসচেতন পর্যটক ও বিজ্ঞানীদের ৩০ সদস্যের একটি দল আন্তর্জাতিক জলসীমায় ভ্রমণ জাহাজে নারীদের পক্ষে বিক্ষোভ করেছেন।