বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯

দুর্গাপুরে ছাত্রলীগ নেতাকে হাতুড়ি পেটা করলো আ.লীগ নেতা

SONALISOMOY.COM
জানুয়ারি ২৩, ২০১৭
news-image

রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহীর দুর্গাপুরে ছাত্রলীগ নেতাকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করেছে আওয়ামী লীগ নেতার লোকজন। সোমবার সকাল ১০ টার দিকে হাতুড়ির পিটুনিতে জখম আহত ছাত্রলীগ নেতা জহির রায়হান রাজাকে স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়।
দুর্গাপুর উপজেলার আন্দুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে টিফিন ক্যারিয়ার বিতরনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে দু’দফা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনার জের ধরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও আন্দুয়া গ্রামের ইউপি সদস্য আব্দুল মোতালেবের লোকজন জহির রায়হান রাজাকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা।
পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, সোমবার সকাল ১০ টার দিকে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সামাদের ছেলে স্থানীয় ছাত্রলীগের একাংশের নেতা জহির রায়হান রাজা আমগাছী বাজারে আসলে প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগ নেতা ও আন্দুয়া গ্রামের ইউপি সদস্য আব্দুল মোতালেবের লোকজন জহিরকে হাতুড়ি ও লাঠি সোঠা দিয়ে মারপিট করে। এ সময় জহির মটোরসাইকেল থেকে পড়ে। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে জহিরকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ি পাঠিয় দেয়।
ছাত্রলীগ নেতা জহির দাবি করেন, বাড়ি থেকে বাজার করার উদ্দেশ্যে আমগাছী বাজারে যায় সে। বাজার শেষে দুর্গাপুর সদরে ব্যাংকে যাবার পথে হামলাকারীরা তার মটোরসাইকেলের গতিরোধ করে তাকে হাতুড়ি দিয়ে এলোপাতাড়ি পেটাতে থাকে। এ সময় সে মাটিতে পড়ে গেলে তার পরনের প্যান্টের পকেটে থাকা দুই লক্ষ ৬ হাজার টাকা বের করে নেয় হামলাকারীরা।
তবে আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মোতালেব দাবি করেন, এ মারপিটের ঘটনার সাথে তার কোন ধরনের সম্পৃক্ততা নেই। এ ঘটনায় সৃষ্ঠ বিরোধ নিয়ে গত শুক্রবার আন্দুয়া স্কুল মাঠে বসে সমঝোতা করা হয়েছে। অন্য কোন কারনে জহিরকে কেউ মারধোর করতে পারে।
দুর্গাপুর থানার ওসি রহুল আলম জানান, খবর পেয়ে আমগাছী বাজারে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। কি কারনে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে পরে জানা যাবে।
এর আগে গত উপজেলার আন্দুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে টিফিন ক্যারিয়ার বিতরনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে দু’দফা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও মারপিটের ঘটনা ঘটে।