মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯

জেলা চেয়ারম্যানের সংবর্ধনা মঞ্চের পর এমপি আয়েনের চেম্বারে হামলা

SONALISOMOY.COM
জানুয়ারি ৩১, ২০১৭
news-image

রাজশাহী প্রতিনিধি:
রাজশাহীতে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের সংবর্ধনার মঞ্চ ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত চেম্বারে পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার বিকেলে ও রাতে এই পৃথক দু’টি হামলার ঘটনায় কোন হতাহত হয়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সোমবার বিকেলে ৪টার দিকে পবা উপজেলার কাপাশিয়া টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট ইন্সটিটিউটে কৃতি শিক্ষার্থী ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ আসাদুজ্জামান আসাদ। ওই অনুষ্ঠানে স্থানীয় সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিনকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়। কিন্তু অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার পর আসাদুজ্জামান আসাদকে প্রধান অতিথি ঘোষনা করা হয়।
আসাদকে প্রধান অতিথি ঘোষনার খবর পেয়ে অনুষ্ঠানে যাওয়ার মাঝপথ থেকে ফিরে যান সাংসদ আয়েন উদ্দিন। এর পর পরই বিকেলে সাড়ে ৪টার দিকে অনুষ্ঠান চলা অবস্থায় সাংসদ আয়েনের সমর্থক অনুষ্ঠান মঞ্চে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এতে সংবর্ধনা অনুষ্ঠান পন্ড হয়ে যায়। হামলার সঙ্গে সঙ্গে মঞ্চ থেকে নেমে দ্রæত অনুষ্ঠান স্থল ত্যাগ করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার। হামলার সময় মঞ্চের সামনে কয়েকশ’ শিক্ষার্থী বসে ছিল।
অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছাড়াও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য নাইমুল হুদা রানা, নারী সদস্য জয়জয়ন্তী সরকার মালতি, জেলা যুবলীগের সভাপতি আবু সালেহ, সাধারণ সম্পাদক খালিদ ওয়াসি কেটু উপস্থিত ছিলেন।
মতিহার থানার ওসি হুমায়ন কবীর বলেন, সভা শুরু পর দুর্বৃত্তরা মঞ্চে হামলা চালায়। খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়। তবে পুলিশ পৌঁছার আগেই দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায় বলেন তিনি।
জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার বলেন, পরিকল্পিতভাবে সাংসদ আয়েন তার সমর্থক দিয়ে এ হামলা চালিয়েছে। অনুষ্ঠানে পুলিশ মোতায়েনের জন্য মতিহার থানায় জনানো হয়েছিল। কিন্তু সংসদ আয়েনের কথা শুনে সেখানে পুলিশ দেয়া হয়নি বলে দাবি করেন মোহাম্মদ আলী।
এদিকে, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের সংবর্ধনার মঞ্জে হামলার ঘটনার জের ধরে রাত সাড়ে ৭টার দিকে জেলার সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদের সমর্থকরা নগরীর বিলসিমলা এলাকায় সাংসদ আয়েনের ব্যক্তিগত চেম্বারে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এসময় পুলিশকেও লাঞ্ছিত করে তারা। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণে আনে বলে জানান রাজপাড়া থানার ওসি আমান উল্লাহ।
তিনি বলেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের সংবর্ধনা মঞ্চে হামলার পর থেকে সাংসদ আয়েনের চেম্বরের সামনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তবে হামলার সময় চেম্বারে সংসদ সদস্য ছিলেন না বলে জানান তিনি।
এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তাদের পাওয়া যায়নি।