রবিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৯

সেরা ছবি মুনলাইট, অভিনেতা ক্যাসি, অভিনেত্রী এমা

SONALISOMOY.COM
ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৭
news-image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বিশ্ব চলচ্চিত্রের সবচেয়ে মর্যাদাসম্পন্ন পুরস্কার অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডের (অস্কার ) ৮৯ তম আসর বসে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসে।

বাংলাদেশ সময় সোমবার সকাল সাড়ে ৭টায় শুরু হওয়া অনুষ্ঠান লস অ্যাঞ্জেলেসের ডলবি থিয়েটার থেকে বিশ্বজুড়ে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

এবার সেরা ছবির পুরস্কার জিতেছে ব্যারি জেনকিন্সের ‘মুনলাইট’ । তবে প্রথমে ভুল করে সেরা ছবি হিসেবে লা লা ল্যান্ডের নাম ঘোষনা করা হয়েছিল। এবারের আসরে ১৪টি মনোনয়ন পেয়ে রেকর্ড সৃষ্টি করে ‘লা লা ল্যান্ড’। শেষ পর্যন্ত সেরা নির্মাতা, সেরা অভিনেত্রীসহ ছয়টি পুরস্কার জিতে নেয় মিউজিকাল ঘরানার রোমান্টিক এ ছবিটি।

সেরা পরিচালক হয়েছেন ডেমিয়েন শাজেলে (লা লা ল্যান্ড)। প্রথমবার মনোনয়নেই বাজিমাত করেছেন ডেমিয়েন। তার প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন- ডেনিস ভিলেনেউভ (অ্যারাইভাল), মেল গিবসন (হ্যাকসো রিজ), কেনেথ লোনেরগান (ম্যানচেস্টার বাই দ্য সি), ব্যারি জেনকিন্স (মুনলাইট)।

‘ম্যানচেস্টার বাই দ্য সি’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেতা হিসেবে অস্কার জিতে নিয়েছেন ক্যাসি অ্যাফ্লেক। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন- অ্যান্ড্রু গারফিল্ড (হ্যাকসো রিজ), রায়ান গসলিং (‘লা লা ল্যান্ড ), ভিগো মরটেনসেন (ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাস্টিক) ও ডেনজেল ওয়াশিংটন (ফেন্সেস)।

আর ‘লা লা ল্যান্ড’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছেন এমা স্টোন। এ বিভাগে এমার প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন ‘অস্কার কুইন’ খ্যাত মেরিল স্ট্রিপ (ফ্লোরেন্স ফস্টার জেনকিনস)। এছাড়া ছিলেন- ইসাবেলা হুপার্ট (এলে), রুথ নেগা (লাভিং) ও নাটালি পোর্টম্যান ( জ্যাকি)।

‘মুনলাইট’ ছবির জন্য এবারের সেরা সহ-অভিনেতার অস্কার জিতেছেন মাহারশালা আলী। এই বিভাগে মনোনয়ন তালিকায় আরো ছিলেন- লুকাস হেজেস (ম্যানচেস্টার বাই দ্য সি), জেফ ব্রিজেস (হেল অর হাই ওয়াটার), মাইকেল শ্যানন (নকটারনাল অ্যানিমেলস), দেব প্যাটেল (লায়ন)।

সেরা সহ-অভিনেত্রী বিভাগে ‘ফেন্সেস’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য অস্কার জিতেছেন ভায়োলা ডেভিস। তার সঙ্গে এ বিভাগে লড়াইয়ে ছিলেন- নিকোল কিডম্যান (লায়ন),মিশেল উইলিয়ামস (ম্যানচেস্টার বাই দ্য সি), অক্টোভিয়া স্পেনসার (হিডেন ফিগার্স) ও নাওমি হ্যারিস (মুনলাইট)।

সেরা বিদেশি ভাষার ছবি হিসেবে বিজয়ী হয়েছে ইরানের ‘দ্য সেলসম্যান’। এটির প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল- জার্মানির ‘টনি আর্ডমান’, সুইডেনের ‘আ ম্যান কলড উভা’, অস্ট্রেলিয়ার ‘ট্যানা’ ও ডেনমার্কের ‘ল্যান্ড অব মাইন’।

সেরা অ্যানিমেশন ছবি বিভাগে সেরা পূর্ণদৈর্ঘ্য অ্যানিমেটেড ছবির পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছে ‘জুটোপিয়া’ । এবং সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য অ্যানিমেটেড ছবির পুরস্কার পেয়েছে ‘পাইপার’।

শব্দমিশ্রণ বিভাগে বিজয়ী হয়েছেন কেভিন ও’কনেলসহ তিন শব্দ প্রকৌশলী ‘হ্যাকসো রিজ’ ছবির জন্য। কেভিনের জন্য এটি বিশাল অর্জন। কেননা এর আগে ২০ বার মনোনীত হয়েও পুরস্কার জোটেনি তার ভাগ্যে। তবে ২১তম বারে এসে তার দুর্ভাগ্যের অবসান হয়েছে। মর্যাদার অস্কার জিতে হাসি ফুটেছে কেভিনের মুখে।