মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯

আইপিএল বাদ দাও, মোস্তাফিজকে মাশরাফি

SONALISOMOY.COM
মার্চ ২৫, ২০১৭
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক:

আবার এসে গেল সেই দিন। ভারতীয় টিভি চ্যানেলগুলো মেতে উঠবে। বাংলাদেশের কোনো টিভি চ্যানেলেও সেই ঢেউ ছড়িয়ে পড়বে। টিভি পণ্ডিতদের মুখগুলো দেখতে দেখতে বিরক্তি ধরে যাবে। চিয়ারলিডাররা নাচবে। আগামী ৫ এপ্রিল থেকে শুরু হয়ে ভারতীয় প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) চলবে ২১ মে পর্যন্ত। ‘আদর’ করে অনেকে ভারতের যে টি-টোয়েন্টি লিগকে ডাকেন ইন্ডিয়ান পয়সা লিগ।
পুরো ভারতে উন্মাদনা ছড়াবে আইপিএল, তার ছিটেফোঁটা এ দেশেও খানিক আসবে। কেননা, আইপিএলে আছেন বাংলাদেশের দুই ক্রিকেটার—সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান।
মোস্তাফিজ গতবার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে বল হাতে যে কাণ্ড-কীর্তি করেছেন, তাতে হায়দরাবাদবাসী ক্ষণ গণনাই হয়তো শুরু করেছেন। কবে আসবেন মোস্তাফিজ? গত আইপিএল খেলে যেমন নায়ক হয়েছেন, সেখানেই আবার চোটের দেখা পেয়েছেন বাংলাদেশের বাঁহাতি পেস বোলিংয়ের জাদুকর। ১৬ ম্যাচে ২৪.৭৬ গড়ে নিয়েছিলেন ১৭ উইকেট। আর তাতেই প্রথমবারের মতো আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হায়দরাবাদ। হায়দরাবাদ এবার পাবে না তাদের নায়ককে? মোস্তাফিজ কি খেলবেন না আর ১০ দিন পরই শুরু হতে যাওয়া আইপিএলে?
বাংলাদেশের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার কথা যদি শোনেন, তাহলে মোস্তাফিজ হয়তো আইপিএলে যেতে চাইবেন না। না, মাশরাফি তাঁকে উপদেশ দেননি। কাল সংবাদ সম্মেলনে ওঠা একটি প্রশ্নের পিঠেই এমন উত্তর দিয়েছেন।
একটি ওয়েবসাইটের হয়ে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজ কভার করতে এসেছেন কলকাতার এক সাংবাদিক। তাঁর প্রশ্নটা ছিল, ‘মোস্তাফিজ যে এত ক্রিকেট খেলছেন, তাঁকে বিশ্রাম দিয়ে এখানে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে না খেলানোর কোনো পরিকল্পনা কি আছে আপনাদের? কেননা, এরপর আইপিএল আছে। তারপর আছে ত্রিদেশীয় সিরিজ ও চ্যাম্পিয়নস ট্রফি।’
মাশরাফির মুখে নিরাবেগ জবাব, ‘দেখুন, তাকে (বিশ্রাম) দিতে হবে কি না সেটি ভেবে দেখবেন ফিজিও, কোচ, ট্রেনার। আমি তো এখানে বলার কেউ নই। আর যদি আমার মত চান, আমি তো বলব, ওর আইপিএলটাই বাদ দেওয়া উচিত। কারণ, দেশই তো সবার আগে।’
এটা সত্যি যে, গত বছর আগস্টে কাঁধের অস্ত্রোপচারের পর গত তিন মাসে টানা ক্রিকেট খেলেছেন মোস্তাফিজ। জানুয়ারিতেই আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে নিউজিল্যান্ডে খেলেছেন দুটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি। সেখানে টেস্ট খেলেননি। পরে হায়দরাবাদে ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টেও খেলেননি। শ্রীলঙ্কায় এসে খেলেছেন দুই টেস্টেই। আর তাই দুই বছর মিলিয়ে তাঁর টেস্ট খেলা হলো চারটি। তা মোস্তাফিজ কেমন করেছেন শ্রীলঙ্কা টেস্ট সিরিজে?
গলে প্রথম দিকে একটু জড়তা ছিল। কিন্তু সময় যত গেছে, ফিরে পেয়েছেন সেই বিষমাখানো কাটারগুলো, ফিরে পেয়েছেন গতি। দুই টেস্টে ৭৮ ওভার বোলিং করে মোস্তাফিজ নিয়েছেন ৮ উইকেট। অন্তত তিনটি আগুন ঝরানো স্পেল বেরিয়েছে তাঁর হাত থেকে। পি সারা টেস্টের তৃতীয় দিনের দুপুরে খটখটে উইকেটে যে বোলিংটা করলেন, তাতেই আসলে শ্রীলঙ্কার পতন আসন্ন মনে হচ্ছিল। কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে গর্বভরে বলেছেন ওই স্পেলটার কথা। কোচের মনের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে তাঁর পেস-অস্ত্রটিকে ফিরে পাওয়ার আনন্দ। মনে হয় না বাংলাদেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই ওয়ানডে সিরিজে মোস্তাফিজকে বিশ্রাম দেওয়ার পরিকল্পনা আছে হাথুরুসিংহের।