বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণে প্রধানমন্ত্রীর আগ্রহ, প্রস্তাবনা নেই মন্ত্রণালয়ের!

SONALISOMOY.COM
মে ২১, ২০১৭
news-image

সোনালী সময় ডেক্স

বেসরকারি শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেছেন, “জাতীয়করণে খুব শিগগিরই আপনাদের শুভদিন আসছে।”

“জাতীয়করণে কত টাকা খরচ হবে। মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ইত্যাদি আলাদা আলাদা খরচের হিসেব অন্তত তিনবার জানতে চেয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, ” যোগ করেন প্রতিমন্ত্রী। তবে গত রোবরারে খরচ সংক্রান্ত একটি হিসাব স্মারকলিপির সংগে প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া হয়েছে।

গত ২১শে মে ঢাকার রমনা এলাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত শিক্ষক-কর্মচারী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে সমাবেশে যোগ দেয়া শত শত শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, “আপনারা আপনাদের মতো করে এগোতে থাকেন। আমার পক্ষ থেকে যতটুকু সহযোগিতা করা যায় তা করবো,’।

শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী আরও করে বলেন, “রাস্তায় নেমে আন্দোলন করলে জাতীয়করণ হবে না। জাতীয়করণে পদদ্ধতিগতভাবে এগোতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে যুক্তিসঙ্গতভাবে বোঝাতে হবে জাতীয়করণের ব্যয়ের হিসাব।”

“আপনারা (শিক্ষকরা) বলুন জাতীয়করণ করা হলে আপনারা কোচিং করাবেন না। এইভাবে আপনারা পজেটিভ ধারণা দিন সরকারের উচ্চ পর্যায়কে।”“চাপ দিয়ে কিছু নিতে পারবেন না,” বলেন প্রতিমন্ত্রী।

জানা যায়, প্রতিমন্ত্রী নিজেও একসময় শিক্ষক ছিলেন।সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তৃায় সাবেক শিক্ষা সচিব মোঃ নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আমি আমার অবসরের একদিন আগে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতকালে তিনি আমাকে জিজ্ঞেস করেন, ‘তুমি কি চাও?’ জবাবে আমি বলি, ‘আমি দুটি জিনিস চাই। এক শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ করে দিন। দুই, আমাকে পনেরশ কোটি টাকা দেন যাতে সব অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের অবসর ও কল্যাণ সুবিধার টাকা সময়মতো দিতে পারি।”

“প্রধানমন্ত্রী আমাকে বলেন: জাতীয়করণ করবো কিন্তু মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাবনা কই? প্রস্তাবনা না দিলে, হিসেব না দিলে কীভাবে জাতীয়করণ করবো?,” যোগ করেন সাবেক শিক্ষা সচিব।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নের জবাবে আমি বলেছিলাম এক হাজার কোটি টাকার কিছু বেশি লাগবে।”

মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয়করণের দাবীতে আয়োজিত সমাবেশে সকাল সাড়ে নয়টায়র মধ্যে হাজার হাজার শিক্ষক-কর্মচারী জমায়েত হন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে

(সূত্র- দৈনিক শিক্ষা)