বুধবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

এনামুল হক সৌভাগ্যবানঃ নানক

SONALISOMOY.COM
জুলাই ২৯, ২০১৭
news-image

বাগমারা প্রতিনিধি
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বাগমারা আসনের সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের প্রশংসা করে ও তাঁকে সৌভাগ্যবান আখ্যা দিয়ে বলেছেন, তাঁর মতো এমপি পাওয়া সৌভাগ্যের বিষয়। তিনি নিজ উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু জাদুঘর কমপ্লেক্স স্থাপন করে দেশে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। তাঁকে অনুসরণ করার জন্য দেশের অন্য সাংসদদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি এনামুল সর্ম্পকে বলেন, তাঁকে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ভালোবাসেন। তাঁকে ভালোবেসে বাগমারায় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী এসেছেন, অথচ তাঁর আসনে কেউ যাননি। তিনি গতকাল শনিবার সকালে ভবানীগঞ্জ নিউমার্কেটে সরকারের সুবিধাভোগীদের নিয়ে আয়োজিত ‘শান্তি ও উন্নয়নের মহা সড়কে বাগমারা’ শীর্ষক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেছেন।
নানক বলেন, আগামীর নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করতে সবাইকে নৌকায় ভোট দিতে হবে। আবারো শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করার জন্য তিনি উপস্থিত লোকজনদের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার বিভিন্ন ভাতা চালু করে দেশের জনগণের সেবা করে চলেছে।

গত সাড়ে আট বছরে দেশের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বলেন, দেশের যে উন্নয়ন হয়েছে, তার দৃষ্টান্ত বাগমারা। বিদ্যুৎ, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ ক্ষেত্রে উন্নয়ন হয়েছে। বাগমারা দেশের উন্নয়নের মডেল।

প্রধান অতিথি গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা নোবেল বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনুসের হঠাৎ সক্রিয় হওয়াতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আতঙ্কিত বলে মন্তব্য করে বলেন তিনি বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তিনি তাঁকে গণতন্ত্রের সমাহিতকারী উল্লেখ করেছেন।

নানক ড. ইউনুসকে ১/১১ এর নায়ক উল্লেখ করে বলেছেন, ওই সময়ে তিনি দুই নেত্রীকে মাইনাস করার চেষ্টা করেছিলেন। মাইনাস ফর্মুলাও তাঁর। আগামী নির্বাচন নিয়ে এমন কিছু করতে পারেন বলে উল্লেখ করেন।

তিনি বিএনপির দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার লন্ডন সফর সর্ম্পকে অভিযোগ করে বলেন, সেখানে তিনি কুলাঙ্গার পুত্র তারেক রহমানকে নিয়ে লন্ডনে বসে পাকিস্থানের গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে আগামী নির্বাচন বানচাল করার জন্য বৈঠক করেছেন। দেশের মানুষ তা কখনোও হতে দিবে না। জনাব নানক খালেদা জিয়ার দেশে ফেরা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করে বলেছেন, কত মাস, কত বছর পর আসবেন কিংবা আদৌ আসবেন কিনা তা বলা যাচ্ছে না।

তিনি আরও বলেছেন, তারেক রহমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টার সঙ্গে জড়িত। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার সঙ্গে জড়িত। মামলার ভয়ে দেশ থেকে পালিয়েছেন। আইনকে মোকাবিলার সাহস থাকলে দেশেই থাকতেন। তাঁর সৎ সাহস নেই। বাংলাদেশে রাজনীতি করারও অধিকার নেই।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাংসদ এনামুল হকের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক এমপি, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, কেন্দ্রিয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, নুরুল ইসলাম ঠান্ডু, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাংসদ ওমর ফারুক চৌধুরী, সংরক্ষিত আসনের সাংসদ বেগম আক্তার জাহান, জেলার সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, সহসভাপতি অনিল কুমার সরকার, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু, সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হক মাসুদ, আলফোর রহমান, আসাদুজ্জামান, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুস সামাদ, মহানগরের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, কেন্দ্রিয় যুব মহিলা লীগের সহসভাপতি আঞ্জুমান আরা মিতা, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি রবিউল আলম বাবু, যুবলীগের সভাপতি আবু সালেহ, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মর্জিনা পারভীন, যুব মহিলা লীগের সভাপতি নার্গিস শেলী, ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক মণ্ডল। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান জাকিরুল ইসলাম সান্টু।

অনুষ্ঠানে সকাল থেকে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে সুবিধাভোগী ছাড়াও দলীয় নেতা-কর্মীদের ঢল নামে। আওয়ামী লীগের পক্ষে শ্লোগানে মুখরিত হয় গোটা নিউমার্কেট চত্বর। বিপুল সংখ্যক লোকজনের উপস্থিতিতে অতিথিরা অভিভূত হন।