মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯

ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলা সবার দায়িত্বঃ এনামুল হক এমপি

SONALISOMOY.COM
সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭
news-image

বাগমারা প্রতিনিধি
হিন্দুধর্মীয় নেতাদের উদ্দেশ্যে রাজশাহী-৪ বাগমারা আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেছেন, যারা ধর্মীয় চেতনাকে বিশ্বাস করে কাজে লাগায় তারাই ব্যক্তি জীবনে উপকৃত হয়। তাই ধর্মীয় চেনতায় নিজকে গড়ে তুলতে হবে। তিনি আরও বলেন, কোনো ধর্ম মানুষকে হত্যাকরা সমর্থন করে না। যারা ধর্মীয় চেতনাকে কাজে লাগিয়ে মানুষকে হত্যা করে তারা প্রকৃত ধার্মিক নয়। যারা ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলে তারা খারাপ কাজ করতে পারে না। তাই ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলা প্রত্যেকের দায়িত্ব । তিনি শনিবার দুপুরে উপজেলার শিকদারীর সালেহা-ইমারত কোল্ডস্টোরেজে আয়োজিত হিন্দুধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেছেন।

সাংসদ আরও বলেন, যারা ধর্মীয় অনুভুতিকে কাজে লাগিয়ে সমাজকে অপব্যাখ্যা প্রদান করেন তারা প্রকৃত নেতা নয়। তাদের থেকে দূরে থাকার জন্য আহ্বান জানান।

উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি প্রদীপ কুমার সিংহ এর সভাপতিত্বে ও জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক অধ্যাপক কাঞ্চন রায় চৌধুরীর সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি অনিল কুমার সরকার, ভবানীগঞ্জ পৌর সভার মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডল, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা সংসদেও ডেপুটি কমান্ডার সুনীল কুন্ডু, বাগমারা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শীতেন্দ্রনাথ প্রাং, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি চেয়ারম্যান বিজন কুমার সরকার, সম্পাদক হিরেন্দ্রনাথ উকিল, পরিমল কুমার মন্ডল, বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাছিম আহম্মেদ।

প্রধান অতিথি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে শারদীয় দূর্গা পূজা পালন করার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, দেশের প্রতিটি উৎসব এখন আর শুধু কোনো ধর্মের বা কোন সম্প্রদায়ের একার না এক একটি উৎসব এখন স্বার্বজনীন উৎসবে রুপ নিয়েছে। এজন্য ব্যক্তি উদ্যোগে সব ধরণের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেছেন, সুষ্ঠুভাবে পূজা উদযাপনের জন্য প্রশাসনিক সব ধরণের ব্যবস্থা নিয়েছে।
এমপি এনামুল হক বলেন, এলাকার সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন যেন উৎসবের আনন্দ থেকে বাদ না পড়ে সে লক্ষ্যে উপজেলার প্রতিটি পূজা মন্দির কমিটির হাতে ব্যক্তিগত তহবিল হতে নগদ ২ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়েছে।

সভায় সাংসদ বন্যায় ক্ষতি গ্রস্ত ও বিভন্ন পূজা মন্ডপ সংস্কার কাজের জন্য ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেন। একই সঙ্গে উপজেলার ৫০ টি পূজা মণ্ডপের উন্নয়নের জন্য ১০ হাজার করে টাকা প্রদানের ঘোষনা দেন।
সভায়
অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আ’লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক কুমার প্রতীক দাশ রানা, উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মতিউর রহমান টুকু, যুগ্ম সম্পাদক গোলাম সারোয়ার আবুল, সিরাজ উদ্দীন সুরুজ, দপ্তর সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, সহ-দপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম, সহ-প্রচার সম্পাদক ফরহাদ হোসেন মজনু, জেলা পরিষদ সদস্য নার্গিস বেগম, জেলা মহিলা আ’লীগের সদস্য জাহানারা বেগম, উপজেলা মহিলা আ’লীগের সভানেত্রী মরিয়ম বেগম, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের গ্রন্থ ও পকাশনা বিষয়ক মস্পাদক রতন কুমার, কৃষকলীগের সভাপতি এমদাদুল হক, উপজেলা মহিলা আ’লীগের দপ্তর সম্পাদক মিরা পারভীন, যুব মহিলা লীগের সভাপতি শাহীনুর খাতুন, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি ইসমাইল হোসেন সান্টু প্রমুখ।