মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৭

বিশ্বকাপ ঘরে নিবে ব্রাজিল!

SONALISOMOY.COM
ডিসেম্বর ১, ২০১৭
news-image

ফিফা ডটকম, গোল ডটকম

বিশ্বকাপ মানেই ব্রাজিলের দাপট। সর্বোচ্চ পাঁচবার বিশ্বকাপ শিরোপা জিতেছে লাতিন দলটি। তবে সর্বশেষ বিশ্বকাপ স্মৃতিটা ভালো নয় সেলেসাওদের। রাশিয়া বিশ্বকাপে কি সেই দুঃস্বপ্ন কাটাতে পারবে তারা? দলের সেরা তারকা নেইমার অবশ্য সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ব্রাজিল ছন্দে ফিরেছে। তাই ভয়ের প্রশ্নই নেই।

ঘরের মাঠে ২০১৪ বিশ্বকাপে চতুর্থ হয়েছিলেন লুইজ-অস্কাররা। প্রথমে সেমিফাইনালে জার্মানির হাতে ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত হওয়া। এরপর তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের কাছে ৩-০ গোলের পরাজয়। শেষ দুই ম্যাচে গুনে গুনে ১০ গোল খেয়ে বিশ্বকাপ শেষ করতে হয়েছিল স্বাগতিকদের। বেলা-হরিজন্তের সেই ম্যাচের ভূত এখনো ব্রাজিল সমর্থকদের দুঃস্বপ্নে হানা দেয়।

কিন্তু নতুন কোচ তিতের ছোঁয়ায় বদলে গেছে দলটি। কনমেবল অঞ্চলের শীর্ষে থেকে রাশিয়ায় খেলা নিশ্চিত করেছে তারা। বাছাইপর্বে মাত্র এক ম্যাচ হেরেছে। পিএসজি তারকা নেইমারের উজ্জীবিত খেলায় ব্রাজিল তাদের সম্মান পুনরুদ্ধার করেছে। আরও একটি বিশ্বকাপের আগে তাই সেই পুরোনো আবহটা ফিরে এসেছে। ফেবারিট হিসেবেই রাশিয়ায় যাচ্ছে ব্রাজিল, মিশন হেক্সা।

দলের অধিনায়ক নেইমার জুনিয়র বিশ্বাস করেন, দলের আত্মবিশ্বাস ভালো অবস্থানে আছে। ফিফা ডটকমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘বিশ্বকাপের (২০১৪) দলটির তুলনায় বর্তমান দলটির প্রতি মানুষের শ্রদ্ধা পাল্টেছে। মানুষ আমাদের ভিন্ন চোখে দেখছে। ব্রাজিল, যাদের সবাই সমীহ করত, সেই দলটি ফিরে এসেছে। এটা ভীষণ ভালো লাগছে। সমর্থক এবং দেশের মানুষের মুড ভালো হয়ে এসেছে।’ গত বিশ্বকাপের শেষ দুই ম্যাচে খেলতে পারেননি নেইমার। কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারানোর ম্যাচে জুনিগার ফাউলের শিকার হয়ে কোমরে ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

সেই স্মৃতি মনে করে তিনি বলেছেন, ‘ওই সপ্তাহটা খুব কষ্টে কেটেছে। আমি অনেক কেঁদেছি, নিজেকে প্রশ্ন করেছি, কেন এমন হলো। কিন্তু ধীরে ধীরে আপনি বুঝতে পারেন জীবনে যা কিছু ঘটে, সবই আপনাকে আরও শক্তিশালী করে তোলে।’ অধিনায়ক ও দলের সেরা খেলোয়াড়কে ছাড়া ছন্নছাড়া হয়ে পড়েছিল ‘জোগো বনিতোর’ দেশ। দেশভর্তি সমর্থকদের সামনে মাথা নিচু করে মাঠ ছাড়তে হয়েছিল লুইজ-মার্সেলোদের।

কিন্তু এবারে ভীষণ আত্মবিশ্বাসী নেইমার। ‘আমার মনে হয় এবারের বিশ্বকাপ ব্রাজিলিয়ানদের জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকবে। ব্যক্তিগতভাবে আমি আমার সব টুকু ঢেলে দেব, আমাকে এটা (বিশ্বকাপ) জিততেই হবে।’ নেইমারের বাণীতেই সাহস পাবেন হলুদ জার্সির সমর্থকেরা। আগের চেয়ে শক্তিশালী দল নিয়ে এবারে নেইমারদের ‘মিশন হেক্সা’, ব্রাজিল পারবে তো?

এ জাতীয় আরও খবর