বুধবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৮

শ্রমবাজারে ফের চাঙ্গা ভাব খুলে যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যে কাজের দুয়ার

SONALISOMOY.COM
ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১৮
news-image

সোনালী সময় প্রতিবেদক: বর্তমান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সুষ্ঠু অভিবাসন ব্যবস্থাপনা্য বিদেশের শ্রমবাজারে কর্মক্ষম জনবলের একটি বড় অংশের কর্মসংস্থান হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরাসরি দিক নির্দেশনা এবং দক্ষ শ্রম কূটনীতিক প্রচেষ্টায় বিগত ৯ বছরে প্রায় ৫২ লাখ কর্মী কর্মসংস্থানের উদ্দেশ্যে বিদেশ গমন করেছে। ২০১৭ সালে জনসংখ্যা রপ্তানিতে বিগত ৪১ বছরের রেকর্ড ভেঙে ১০ লাখেরও অধিক বাংলাদেশির কর্মসংস্থান হয়েছে।

সরকারের প্রচেষ্টায় মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশি শ্রমিকের চাহিদা বাড়ায়, গত বছর সৌদি আরবে প্রায় সাড়ে ৫ লাখ, ওমানে প্রায় ৯০ হাজার এবং কাতারে প্রায় ৮২ হাজার শ্রমিক প্রেরণ সম্ভব হয়। ১ লাখ ২২ হাজার নারী কর্মীর মধ্যে সৌদি আরবে প্রায় ৮৩ হাজার, জর্ডানে ২০ হাজার এবং ওমানে ৯ হাজার নারীর কর্মসংস্থান হয়।

শ্রম ও কূটনৈতিক প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকায় গত ৯ বছরে ১৮ টি দেশে ১৯ টি নতুন শ্রমকল্যাণ উইং খোলা হয়েছে। এছাড়া দক্ষ শ্রমশক্তি গঠনের নিমিত্তে ৭০ টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ৪৮ ট্রেডে তরুণ-তরুণীদের প্রশিক্ষণ ও বৈধ পথে কম খরচে কর্মীদের বিদেশ পাঠাতে কাজ করছে সরকার।

২০০৯ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত কর্মীদের পাঠানো রেমিটেন্সের পরিমাণ ১ লাখ ১৮ হাজার ৭০ মিলিয়ন ডলার।

সাফল্যের এই ধারা বজায় থাকলে ২০১৮ সালে প্রায় ১২ লক্ষ শ্রমিকের বিদেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে এবং দেশের রেমিটেন্স প্রাপ্তিতে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আসবে বলে ধারণা করছে অর্থনীতি বিশ্লেষকরা।

তাই বলা যায়, জনশক্তি রপ্তানিতে বর্তমান সরকারের ঈর্ষনীয় সাফল্য দেশের বেকার জনগোষ্ঠীকে কর্মক্ষম করে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে দ্রুত এগিয়ে চলছে।