রবিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৮

মওদুদ কি সরকারের প্রস্তাব নিয়েই লন্ডনে তারেকের সাথে বৈঠক করেছেন?

SONALISOMOY.COM
মে ১৫, ২০১৮
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ কি সরকারের দূত হিসেবে লন্ডনে গিয়েছিলেন? এই প্রশ্ন উঠেছে খোদ বিএনপিতেই। বিএনপি নেতারাও তাঁর সফর নিয়ে অন্ধকারে আছেন। বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য জানিয়েছেন, তাঁরা ব্যারিস্টার মওদুদের লন্ডন সফর সম্পর্কে কিছুই জানতেন না। স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ বলেছেন, ‘আমি উনি যাওয়ার পর শুনি যে লন্ডন গেছেন।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ অবশ্য তাঁর এই সফরকে ‘ব্যক্তিগত’ বলেছেন। টেলিফোনে আলাপকালে মওদুদ বলেছেন, ‘হাসনার (ব্যারিস্টার মওদুদের স্ত্রী) সঙ্গে দেখা করতেই লন্ডনে যাওয়া।’

তবে তিনি নিজেই জানালেন, লন্ডনে তারেক জিয়ার সঙ্গে তাঁর চারবার দেখা হয়েছে। এর মধ্যে দুটি সাক্ষাৎ দীর্ঘ বৈঠকে রূপান্তরিত হয়। বৈঠকে কি আলোচনা হয়েছে, এ ব্যাপারে ব্যারিস্টার মওদুদ কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

তবে, বিএনপিতে গুঞ্জন, বেগম জিয়া ও তারেক জিয়া ছাড়া বিএনপিকে নির্বাচনে নেওয়ার মধ্যস্থতা করতেই ব্যারিস্টার মওদুদ লন্ডনে গিয়েছিলেন। তারেক জিয়া যে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন করতে পারছেন না, সে ব্যাপারে কারোরই কোনো সংশয় নেই। বেগম জিয়ার নির্বাচন করা নিয়েও অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

বিএনপির সিংহভাগ নেতাই বলছেন, বেগম জিয়াকে জেলে রেখে বিএনপি কোনো নির্বাচনে যাবে না। সরকার চাইছে, বিএনপি বেগম জিয়াকে ছাড়াই নির্বাচনে আসুক। এতে বেগম জিয়ার চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ হলো তারেক জিয়ার সম্মতি। কারণ বিএনপিতে এখন তারেক জিয়ার কথাই শেষ কথা। আর তাই সরকারের প্রস্তাব নিয়েই ব্যারিস্টার মওদুদ লন্ডনে গিয়েছিলেন, এমন আলোচনা এখন বিএনপিতে। যদিও ব্যারিস্টার মওদুদ এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি নন।