সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রের স্কুলে গুলি : নিহত ১০

SONALISOMOY.COM
মে ১৯, ২০১৮
news-image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ; যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের সান্তা ফি হাই স্কুলে বন্দুকধারীর গুলিতে অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও কয়েকজন। এই ঘটনায় যারা মারা গেছে তাদের বেশির ভাগই শিক্ষার্থী। পুলিশের একজন কর্মকর্তাও এতে আহত হয়েছেন। বিবিসি ও রয়টার্স এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কমপক্ষে ৮ থেকে ১০ জন এ ঘটনায় নিহত হয়েছে। টেক্সাসের কেন্দ্রীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে টেক্সাসের সান্তা ফে হাই স্কুলে এ ঘটনা ঘটে। সান্তা ফে হাই স্কুলটি টেক্সাসের হাউস্টন শহরের ৬৫ কি.মি দক্ষিণে অবস্থিত। ক্লাস চলাকালে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। তবে হামলাকারী ওই স্কুলের ছাত্র কিনা তা তাৎক্ষণিক জানা যায়নি।

ওই স্কুলের সহকারী অধ্যক্ষ ক্রিস রিচার্ডসন জানিয়েছেন, হামলাকারী বন্দুকধারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

স্কুলে হামলার পর সন্দেহভাজন হামলাকারী হিসেবে একজন ছাত্রকে আটক করে তাকে পুলিশের হেফাজতে নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। আরেকজন শিক্ষার্থীকেও আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফ্লোরিডার একটি স্কুলে গত ফেব্রুয়ারি মাসের হামলার পর কোনো স্কুলে এটাই সবচেয়ে বড় আক্রমণ।

স্কুলের বিভিন্ন শিক্ষার্থী জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সকাল আটটার দিকে হঠাৎ করেই গুলির শব্দ শোনা যায় এবং স্কুলের সতর্কীকরণ ঘণ্টা বেজে ওঠে। এ সময় হুড়োহুড়ি করে নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার সময় বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সশস্ত্র সদস্যদের উপস্থিতিতে স্কুল থেকে শিক্ষার্থীদের বের করা হয়।
সংবাদমাধ্যম সিএনএন বলছে, গোলাগুলিতে কমপক্ষে ৮ থেকে ১০ জনের নিহত হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত সাত দিনে এই নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের তিনটি স্কুলে গোলাগুলির ঘটনা ঘটল। আর চলতি বছরে পুরো যুক্তরাষ্ট্রে এমন ঘটনা ঘটেছে ২২টি।

একজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাতে সিএনএন জানিয়েছে, সকালে স্কুলটির একটি শ্রেণিকক্ষে ঢুকে গুলি চালায় একজন সশস্ত্র ব্যক্তি। গুলির শব্দে শিক্ষার্থীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। হতাহত ব্যক্তিদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আক্রমণকারীর হাতে শটগানের মতো অস্ত্র ছিল বলেও জানা গেছে।