মঙ্গলবার, ২১ আগস্ট, ২০১৮

পর্দা নামলো ‘সিঁদুর রিদম অব লাইফ-২০১৮’র

SONALISOMOY.COM
জুলাই ৯, ২০১৮
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক : পর্দা নামলো ‘সিঁদুর রিদম অব লাইফ-২০১৮’র। অর্ধলক্ষ মেম্বারের পছন্দের অনলাইন বুটিক শপ। ইতিমধ্যে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। শতাধিক নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে পর্দা ওঠেছিল ‘সিঁদুর রিদম অব লাইফ-২০১৮’। ২০১৭ সালে প্রথম সিঁদূর গ্রান্ড গেট টু গেদার শুরু হওয়ার পর দ্বিতীয়বারের মতো এই আয়োজ করেন সিূঁদর কতৃপক্ষ।

অনুষ্ঠান শুরুর পূর্ব মুহুর্ত থেকেই রমণীদের আগমনে কনভেনশন সেন্টার রুপ নেয় এক মিলনমেলায়। নেচে-গেয়ে আনন্দ উপভোগ করেন স্পন্সররা। এছাড়াও অনুষ্ঠানে ফ্যাশন শো, স্পন্সর (পৃষ্ঠপোষক) এবং সফল নারী উদ্যোক্তাদেরকে সিঁদুরের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করা হয়।

গত শনিবার রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত হয় এই পুনঃমিলনী অনুষ্ঠান। এতে মোট ১৩৯ জন নারী উদ্যোক্তা এবং অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট অংশ নেন।

‘সিঁদুর রিদম অব লাইফ-২০১৮’ সকাল ১১টায় শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পুরোদমে চলে। অনুষ্ঠানের শুরুতেই আয়োজন করা হয় পরিচিতি পর্ব। এ পর্বে নারী উদ্যোক্তা এবং অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টরা নিজেদের সাথে পরিচিত হওয়ার সুযোগ পান। এরপর অনলাইন ভিত্তিক ব্যবসার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় এই পুনঃমিলনীর অনুষ্ঠানে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন সফল নারী উদ্যোক্তারা। এসময় বক্তারা তাদের বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে নিজেদের ব্যবসায়িক অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন ও নতুনদের জন্য বিভিন্ন করণীয় দিক নির্দেশনা দেন।

সোনালী সময়কে স্পন্সররা একান্ত আলাপে জানান, সুন্দর একটি দিন কাটিয়েছি। সত্যিই অসাধারণ ছিল। অনেক ভালো লেগেছে। হয়তো বলে বোঝাতে পারবোনা। শিথী অাপুর প্রতি বিশ্বাস ছিল। বিশ্বাস আরও কয়েকগুন বেড়েছে। সে সৃষ্টিশীল। এটা তিনি একাধিকবার প্রমাণ করেছেন। আমাদের চোখে দেখা একাধিক গুনে গুনান্নিত রমণীদের মাঝে শিথী অন্যতম।

সিঁদূর চেয়ারম্যান শিথী বলেন, অামি একটু সরল ভাবে যদি বিশ্লেষণ করতে চাই তাহলে বলবো, যদি জীবনে দু’একটা দিন বিন্দাসভাবে না চলতে পারি তাহলে জীবনটাই উপভোগ করা হবেনা। ব্যক্তিগত আমি সকলকে হ্যাপী দেখতে চাই।

অনুষ্ঠানে ‍উপস্থিত রমণীরা কতটা ‍উৎফুল্ল ছিল তা সবটুকু যেন জানান দিচ্ছে ‍এই ছবিটি।

অনুষ্ঠান সম্পর্কে সিঁদুর কতৃপক্ষ জানায়, “আমরা সকলকে একত্রিত করার চেষ্টা শুরু করেছি। অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আমরা নারী উদ্যোক্তাসহ সাধারণ নারীদের মধ্যে একটি যোগাযোগ-বন্ধন স্থাপন করতে চাই। বাংলাদেশে এখনও নারীদের বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। আমাদের সাথে যদি একে অপরের যোগাযোগটা ভালো থাকে তাহলে এসব সমস্যা মোকাবেলায় একে অপরের পাশে দাঁড়াতে পারি আমরা। পাশাপাশি আমাদের সিঁদুরের যেসব নিয়মিত সদস্য এবং গ্রাহক আছেন তাদের সাথে খুব কাছে থেকে আমরা একটা দিন মেশার সুযোগ পাই”।

অনুষ্ঠান আগামীতেও হবে কিনা জানতে চাইলে সিঁদূর কতৃপক্ষ জানায়, ইনশাআল্লাহ্ আমরা এধারা অব্যাহত রাখবো।

‘সিঁদুর রিদম অব লাইফ-২০১৮’এ স্পন্সর ছিলেন যারা :-

এঞ্জেল প্রভা (প্রভা’স মেকওভার বিউটি পার্লার), রোকেয়া রহমান (ফেয়ার লুক বিউটি পার্লার), মাবিয়া অমি (বিউটি বক্স), নাজিফা হোসাইন (সুইট কেয়ার বিউটি পার্লার), তারিন আক্তার (কেক স্পন্সর), স্নিগ্ধ রিমঝিম (বিয়েবাজার) ফটোগ্রফার সোহেল (ইভেন্ট স্পন্সর), মাঈশা রওশন ইসলাম (ডেজার্ট ল্যান্ড), সাবিহা সুলতানা পায়েল, জাকিয়া দুতি, রোক্সানা পারভীন অর্চি, লিমা হাওলাদার, মেহজাবিন মালিহা মুমু, সারমিন হাফিজ রুপকথা, নাহিদা হান্নান কেয়া (ক্লাসি ফ্যাশন), মাকসুদা অারা পল্লবী, নাসরিন অাক্তার রিয়া (গয়ণার বাক্স), পিন্ক অাফরোজ, ফাহিমা আক্তার লিনা, অাইরিন, অরিন মৌ, অারিফুল ইসলাম (ফটোহলিক), ইব্রাহীম রেজা (ক্রিয়েটিভ ফ্রেম)। তারিন জাহান মজুমদার (আরটি ফ্যাশন), সেলিনা আক্তার (গয়না ঘর), জুবায়েদা পলি (মেহেদী স্পন্সর), রেজওয়ানা নাজনীন (রেজ জুয়েলারী-টাইটেল স্পন্সর), উপমা সাহা (নকশা কুটির), আঈজান নাসা (মিরর), ফাতেমা তুজ জহুরা (তুসি কালেকশান), জান্নাত খান (জয়তুস কালেকশান), সাবিনা ইয়াছমিন জুথি ( আয়াত কালেকশান), আফসানা তরী (আচারিয়ানা), মিতাশা রহমান খান (হিজাব শপ অনলাইন স্টোর), রোক্সানা রহমান তুলী ও শামসুন নাহার ইভা (ওভারটেক), স্লীভিয়া ইসলাম মারিয়া (আযান কালেকশান), টুম্পা ঘোষ (টাঙ্গাইল শাড়ী নিকেতন), কেয়া সাবিনা (টিপটপ সাজ), তাসা ইতি (তাসা’শ কালেকশান), সায়মা আক্তার (মেক ওভার) ও আফরিন শিলা, রেড মারট।