মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৮

বাগমারায় উপজেলা চত্বরে বেড়েছে গরু-ছাগলের উৎপাতে নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ

SONALISOMOY.COM
আগস্ট ৭, ২০১৮
news-image

বাগমারা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে দিনের পর দিন বেড়ে চলেছে গরু-ছাগলের উৎপাত। পরিষদের আশপাশের এলাকাবাসীর ছেড়ে গরু-ছাগল অনায়াসে প্রবেশ করছে। উপজেলা পরিষদের চারদিকে বাউন্ডারী ওয়াল/ প্রাচীর না থাকায় যে কোন সময় তারা পরিষদের ভেতরে ঢুকে পড়ছে। পরিষদের ভেতরে ঢুকে দিব্যি খেয়ে ফেলছে বিভিন্ন দপ্তরের সামনে থাকা শোভা বর্ধণ গাছপালা। এতে করে একদিকে নষ্ট হচ্ছে পরিষদ চত্বরের পরিবেশ অন্যদিকে নষ্ট হচ্ছে বিভিন্ন দপ্তরের সামনের সৌন্দর্য।

মঙ্গলবার বেলা ১ টার দিকে সরেজমিনে গিয়ে দেখাগেছে উপজেলা পরিষদ চত্বরে বেশকিছু ছাগল চরে বেড়াতে। শিক্ষা অফিসের সামনে গ্রীলের প্রাচীর দিয়ে ভেতরে লাগানো সৌন্দর্য বর্ধণ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ একটি ছাগলকে খেতে দেখা যায়। ছাগলটিকে তাড়িয়ে দিলেও একটু পরে এসে আবারও খেয়ে নষ্ট করছে গাছগুলো।

জানাগেছে পরিষদ চত্বরে প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ছোট-বড় নানা প্রকার গরু-ছাগল অবস্থান করে। তারা পরিষদ চত্বরের ছোট, মাঝারি বিভিন্ন প্রকার গাছ-পালা খেয়ে নষ্ট করে। পরিষদ চত্বরে প্রতিদিন কমপক্ষে ১৫-২০টি ছাগলের অনুপ্রবেশ লক্ষ্য করা যায়।

উপজেলা পরিষদের ডরমেন্টরী ভবনে যে সকল স্টাফ থাকেন তাদের বাসাতে কোন ছাগল বা গরু পালন করা হয় না। অথচ বাহির থেকে অবাধে গরু-ছাগল প্রবেশ করে নষ্ট করছে পরিষদ চত্বরের সৌন্দর্য। যেহেতু এসকল গরু-ছাগল আশপাশের গ্রামের লোকজনের তাই তাদের ডেকে এনে নিষেধ করা দরকার। গরু-ছাগল প্রবেশ বন্ধ করলেই স্বাভাবিক পরিবেশ বজায় থাকবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকিউল ইসলাম বলেছেন, যে সকল মালিকদের গরু-ছাগল উপজেলা পরিষদ চত্বরে প্রবেশ করছে তাদেরকে এরই মধ্যে নিষেধ করা হয়েছে। নিষেধের পরেও যাদের গরু-ছাগল পরিষদ চত্বরে প্রবেশ করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।