রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮

বাগমারায় তৃতীয় বারের মতো দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত এমপি এনামুল হকের

SONALISOMOY.COM
নভেম্বর ২৫, ২০১৮
news-image

বাগমারা প্রতিবেদক: রাজশাহী-৪(বাগমারা) আসনের তৃতীয় বারের মতো বাংলাদেশ আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত হয়েছে ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের। রবিবার সকালে বাগমারা আসনের চূড়ান্ত তালিকা হাতে পান দুই বারের সফল সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক। ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের হাত ধরে অশান্ত বাগমারা শান্তির জনপদে পরিনত হয়েছে। এক সময়ের অবহেলীত এবং রক্তাক্ত জনপদ হিসেবে খ্যাত বাগমারাকে এরই মধ্যে শান্তির জনপদে পরিনত করেছেন তিনি। গত দশ বছরে পাল্টিয়ে ফেলেছেন বাগমারার চেহারা। বাগমারার প্রত্যন্ত এলাকাসহ সকল জায়গায় লেগেছে উন্নয়নের ছোয়া।

মৃতপ্রায় বাগমারা ফিরে পেয়েছে আপন মাধুর্য। ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের কারনে উপজেলার প্রতিটি ব্যক্তি এখন শান্তিতে নিঃশ্বাস নিয়ে পারছে। ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বাগমারা আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার আগ পর্যন্ত পুরো উপজেলা ছিল বাংলাভাই, জেএমবি আর সর্বহারার দখলে। সে সময় প্রতিদিনই তাদের হাতে নির্মম ভাবে হত্যা কান্ডের শিকার হতে হয়েছে কোন না কোন ব্যক্তিকে। খালি হয়েছে অনেক মায়ের বুক। তাদের নির্যাতনের শিকার হয়ে অনেকেই পুঙ্গত্বের জীবন যাপন করে চলেছেন।

সেই অশান্ত বাগমারা শান্তির দূত হিসেবে ২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে আবির্ভাব হয় ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের। সেই সময়ে তাঁর নির্বাচনী ইশতেহার ছিলো অশান্ত বাগমারাকে শান্তির জনপদে পরিনত করা। সেই সাথে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বিদ্যুৎ, যোগাযোগ, কৃষি, বেকার জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থান সহ নানাবিধ উন্নয়ন মূলক কাজ। গত দশ বছরে সেই সকল কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করেছেন তিনি।

অশান্ত বাগমারাকে দশ বছরে পরিনত করেছেন স্বপ্নের বাগমারায়। যে বাগমারায় মানুষ জীবনের ভয়ে বাড়ির বাহিরে বের হয়নি। সেই বাগমারা আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের ফলে মডেল উপজেলায় পরিনত হতে চলেছে। সমগ্র উপজেলায় মানুষ এখন রাত দিন দিব্যি চলাচল করতে পারছে। আর এর মূলে রয়েছে বাগমারার সফল সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

আ’লীগ সরকারের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড পরিচালনার ফলে বাগমারা বাংলাদেশের মধ্যে মডেল উপজেলায় পরিনত হতে চলেছে। দেশের ১৪টি উপজেলাকে মডেল উপজেলা তৈরির লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে আ’লীগ সরকার। ১৪টি মডেল উপজেলার মধ্যে প্রথম ধাপে চার টি উপজেলা চিহ্নিত করা হয়েছে। সেই চারটি মধ্যে রয়েছে বাগমারা। এর সবকিছু সম্ভব হয়েছে ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের কারনে।

নিজ স্বার্থকে পিছনে ফেলে জনস্বার্থকে প্রাধান্য দিয়ে একনিষ্ট ভাবে উপজেলার সকল উন্নয়ন করে চলেছেন। অবশিষ্ট উন্নয়ন এবং মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে চাইলে আ’লীগ সরকারের বিকল্প নেই।

বাগমারার আপামর জনগণের উন্নয়ন করতে তৃতীয় বারের মতো ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হককে নৌকা প্রতীকে দিয়েছে আ’লীগ। বিগত সরকারের আমলে যে রক্তাক্ত বাগমারা ছিলো তা এখন শান্তির জনপদ। শান্তির বাগমারা বিনির্মানে ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের নৌকা প্রতীকে দল মত নির্বিশেষে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করতে হবে। আগামী নির্বাচন উন্নয়নের নির্বাচন। আগামী নির্বাচন বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার নির্বাচন।