রবিবার, ২৪ মার্চ, ২০১৯

বাগমারায় ভাসবে নৌকা ডুববে শীষ

SONALISOMOY.COM
ডিসেম্বর ১৯, ২০১৮
news-image

বাগমারা প্রতিনিধি: রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসন জুড়ে কেবল নৌকার সুর। আ’লীগ সরকারের বিগত দশ বছরের উন্নয়ন কর্মকান্ডের ফলে জনমনে নৌকার সুর উঠেছে বলে জানাগেছে। ২০০৮ সালের পূর্বে বিএনপি সরকারের সময়ে বাগমারা ছিল রক্তাক্ত জনপদ। তৎকালীন সময়ের সংসদ সদস্য আবু হেনাই দায়ী সেই পরিস্থিতির জন্য। আবু হেনার কারনে হত্যাকান্ডের শিকার হতে হয়েছে জনপ্রতিনিধি সহ অনেক মানুষকে। একটি বারও এর প্রতিবাদ করেননি তিনি।

নিজের নির্বাচনী এলাকা জঙ্গি, সন্ত্রাসী, বাংলাভাই আর সর্বহারার নিকট লিজ দিয়ে বাহিরে থেকে পার করেছেন তাঁর সংসদীয় মেয়াদ কাল। সেই ব্যক্তিকে বিএনপি থেকে বাগমারায় দলীয় মনোানয়ন দেয়া হয়েছে। আবু হেনাকে মনোনয়ন দেয়ায় আবারও নতুন করে আতঙ্ক বিরাজ করছে এলাকাবাসীর মাঝে।

দলীয় মনোনয়ন পেলেও নির্বাচনী এলাকায় তেমন প্রভাব বিস্তার করতে পারেননি তিনি। শুরু থেকে কর্মী সংকটের মধ্যে পড়েছেন বলেও জানাগেছে। জনপ্রিয়তা না থাকায় ভোটের মাঠে ভালো ভাবে মিছিল, মিটিং কিংবা পথসভাও করতে পারছেন না। এছাড়াও এরই মধ্যে বিএনপি ছেড়ে শত শত নেতাকর্মী আওয়ামীলীগে যোগদান করেছে।

অশান্ত বাগমারায় ২০০৮ সালে হঠাৎ করেই আগমন ঘটে ইঞ্জিনিয়ার এনাামুল হকের। সে সময় বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন তিনি। নির্বাচিত হয়ে শুরু করেন অশান্ত আর রক্তাক্ত বাগমারাকে শান্তির জনপদে পরিতন করতে। বাগমারাকে শান্তির জনপদে পরিতন করার পাশাপাশি বাস্তবায়ন করতে থাকেন নানা প্রকার উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড।

স্কুল-কলেজ, রাস্তা-ঘাট, মসজিদ-মাদ্রাসা,স্বাস্থ্যকেন্দ্র, কমিউনিটি ক্লিনিক, বিদ্যুৎ সহ অসংখ্য উন্নয়ন মূলক কাজ করেছেন তিনি। আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়ন পৌঁছে গেছে বিস্তৃর্ণ এলাকায়। সুন্দর এবং শান্তিপূর্ণ ভাবে বাসবাস করছে লোকজন। প্রতিটি এলাকার লোকজন চাই উন্নয়ন। উন্নয়ন যে বেশি করতে পারবে জনগণ তাকেই সমর্থন জানাবে। কি আওয়ামী লীগ আর কি বিএনপি কোন কিছুই দেখবে না তারা।

বিএনপির তৎকালীন সংসদ সদস্য আবু হেনা ছিলেন নিজের আখের গোছানোর কাজে ব্যস্ত। সে কারণে জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন তিনি। তৃতীয় বারের মতো মনোনয়ন পেলেও পাইনি জন সমর্থন। ভোটারদের ধারণা যদি সুষ্ঠু ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় তাহলে এবার বিপুল ভোটের ব্যবধানে ভরাডুবি ঘটবে ধানের শীষের প্রার্থী আবু হেনার।

প্রতীক পাওয়ার পর থেকেই দিবা-রাত্রী গণসংযোগ, পথসভা আর প্রচার মিছিলে ব্যস্ত সময় পার করছেন ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক। ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের সাথে কূশল বিনিময় করছেন তিনি।

অপরদিকে আবু হেনা বাগমারা আসনের মনোনয়ন পেলেও রাজশাহী শহরে থেকে চালাচ্ছেন নির্বাচনী প্রচারকর্য। এ নিয়ে বিএনপি সমর্থক সহ উপজেলার অন্যান্য ভোটারদের মাঝে চরম অসন্তষ দেখা দিয়েছে।
অনেক ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা গেছে তারা এবার উন্নয়নকেই সর্বাধিক গুরুত্ব প্রদান করবে। বাগমারার আপামর জনগণের উন্নয়নে যে বেশি কাজ করেছে তিনিই এবার নির্বাচিত হবেন বলে জানাগেছে।
এদিকে ধারনা করা হচ্ছে বিভিন্ন প্রকার উন্নয়ন মূলক কাজ আর জনসম্পৃক্ততার কারনে তৃতীয় বারের মতো আকাশ-পাতাল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করবেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

[related_post themes="flat" id="181003"]