সোমবার, ২০ মে, ২০১৯

রাজশাহীর উন্নয়নে সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি: ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী

SONALISOMOY.COM
ডিসেম্বর ২০, ২০১৮
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, রাজশাহীর উন্নয়নের জন্য আমরা নানা পদক্ষেপ এরই মধ্যে নিয়েছি। রাজশাহীতে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করার উদ্যোগসহ নানা প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। আগামীতে রাজশাহীতে টেস্ট ভেন্যুও হবে।

বৃহস্পতিবার (২০ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রী তার ধানমন্ডির সুধাসদন বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজশাহী, জয়পুরহাট, নড়াইল ও গাইবান্ধায় এই চার জেলায় নির্বাচনি সমাবেশে বক্তৃতা রাখেন। এদিন দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে আওয়ামী লীগের নির্বাচনি প্রচারণা উপলক্ষে জনসভায় ভিডিও করফারেন্সে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী।

গত ১০ বছরে আওয়ামী লীগ সরকারে উন্নয়ন তুলে ধরেন শেখ হাসিনা বলেন, ‘রাজশাহীর মানুষের উন্নয়নের জন্য আমরা নানা পদক্ষেপ এরই মধ্যে নিয়েছি। রাজশাহী শহররক্ষা বাঁধ নির্মাণ থেকে শুরু করে রাস্তাঘাট নির্মাণ, রাজশাহী মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাসহ নানা প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে। আগামীতেও রাজশাহীর উন্নয়ন হবে। রাজশাহীতে আন্তার্জাতিক টেস্ট ভেন্যুও করা হবে।’ আগামীতে আরও উন্নয়নের জন্য রাজশাহীর ছয়টি আসনেই নৌকার প্রতীককে বিজয়ী করারও আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘এই রাজশাহীতে বাংলাভাইয়ের, জঙ্গিবাদের উত্থান হয়েছিল। তারা প্রকাশ্যে মানুষ খুন করেছে। আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মীকে প্রকাশ্যে হত্যা করেছে নির্যাতন করেছে। কিন্তু এই রাজশাহীতে এখন শান্তি বিরাজ করছে। আমরা এই রাজশাহীর উন্নয়ন করেছি। রাজশাহীতে কর্মসংস্থান, ব্যবসা-বাণিজ্যেও প্রসারে দৃষ্টি রাখা হয়েছে। রাজশাহীর এয়ারপোর্ট বন্ধ ছিল। আমরা তা চালু করে দিয়েছি। ২০০৮ সাল থেকে দেশ ও জনগণের সেবা করে যাচ্ছি। তা অব্যাহত থাকবে। বাজেটের সময় ইশতেহার রেখে কাজ করি।’

মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন তার বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে রাজশাহীতে টেস্ট ভেন্যুর দাবি করে বলেন, ‘‘আমরা রাজশাহীতে পাঁচ তারা হোটেলের ব্যবস্থা করবো। আপনি আমাদের টেস্ট ভেন্যু দেবেন।’’

জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘‘রাজশাহীতে টেস্ট ভেনু করতে স্টেডিয়ামের উন্নয়ন করতে হবে। পাঁচ তারা হোটেল করতে হবে। আমরা আবার ক্ষমতায় গেলে স্টেডিয়ামের উন্নয়ন করে টেস্ট ভেন্যুও হবে; পাঁচ তারা হোটেলও হবে। যাতে ব্যাবসা বাণিজ্যেরও উন্নয়ন হয়।’’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে ভিডিও কনফারেন্সে বাগমারা আসনের নৌকার প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেন, গত ১০ বছরে বাগমারায় অভূত উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। বাগমারা থেকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বন্ধ করে শান্তির জনপদে পরিনত হয়েছে। ৩০ তারিখ বিপুল ভোটে বাগমারায় আবারও নৌকার বিজয় হবে।

এদিকে পরিচয় পূর্বে রাজশাহীর প্রার্থী ও নেতারা প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, ‘আপনার (প্রধানমন্ত্রী) কাছে আমাদের চাওয়ার কিছু নেই। কারণ আপনি না চাইতে আমাদের দিয়ে থাকেন। তাই আমরা আগামী ৩০ ডিসেম্বর ছয়টি আসন আপনাকে উপহার দেবো।

জনসভায় শেখ হাসিনা রাজশাহীর ছয়টি আসনের নৌকার প্রার্থীদের পরিচয় করে দেন। সিটি মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী-১ আসনের প্রার্থী ওমর ফারুক চৌধুরী, সদর আসনের প্রার্থী ফজলে হোসেন বাদশা, রাজশাহী-৩ আসনের আয়েন উদ্দিন, রাজশাহী-৪ আসনের প্রকৌশলী এনামুল হক, রাজশাহী-৫ আসনের প্রার্থী ডাঃ মনসুর রহমান ও রাজশাহী-৬ আসনের প্রার্থী পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

[related_post themes="flat" id="181015"]