বৃহস্পতিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

কুমিল্লা ও লাকসামে নৌকার পক্ষে দেলোয়ার হোসেন ফারুকের ব্যাপক গণসংযোগ

SONALISOMOY.COM
ডিসেম্বর ২৫, ২০১৮
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার পক্ষে ভোট চেয়ে কুমিল্লা-৬ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার এবং কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসনের প্রার্থী মো.তাজুল ইসলামের পক্ষে ব্যাপক গণসংযোগ করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য ও দেশের অন্যতম তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোক্তা দেলোয়ার হোসেন ফারুক।

ফারুক দেশের সফটওয়্যার প্রস্তুত ও রপ্তানিকারকদের প্রধান সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর চেয়ারম্যান (বেসিস মেম্বারস্ ওয়েলফেয়ার এন্ড মেম্বার সার্ভিসেস)।

তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সাবেক সহ-সম্পাদকসহ দলের বিভিন্ন পদে নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে দলের মনোনয়নপত্র কিনেছিলেন তিনি।

এরপর মনোনয়ন দৌঁড়ে এগিয়ে থাকলেও শেষ পর্যন্ত ওই আসনে দলের একক প্রার্থী হিসেবে চুড়ান্ত মনোনয়ন দেওয়া হয় বর্তমান সংসদ সদস্য মো.তাজুল ইসলামকে।

এরপর দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসনে দলীয় প্রার্থী মো.তাজুল ইসলামকে ফুলের শুভেচ্ছা জানিয়ে তাঁকে বিজয়ী করতে কাজ শুরু করেন ফারুক।

মঙ্গলবার ২৫ ডিসেম্বর, সকাল থেকে নৌকায় ভোট চেয়ে লাকসাম পৌরসভাসহ উপজেলার বাকই দক্ষিণ ইউনিয়নের বিজরা, কৈয়ার, বাকই, কৈত্রাসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় গণসংযোগ করেন তিনি। এছাড়া কুমিল্লা-৯ আসনের নৌকার প্রার্থী মো.তাজুল ইসলাম এমপির সঙ্গেও যোগ দেন বেশ কয়েকটি পথসভায়।

এরপর ওইদিন বিকেলে কুমিল্লা-৬ (সদর) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী এবং মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের জন্য নৌকায় ভোট চেয়ে কুমিল্লা নগরীতে ব্যাপক প্রচারণা চালান তিনি।

ওইদিন বিকেলে নগরীর মুরাদপুরে হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপির সঙ্গে একটি পথসভায় যোগদান করে নৌকায় ভোট চেয়ে বক্তব্য রাখেন দেলোয়ার হোসেন ফারুক।

এদিকে, দিনভর কুমিল্লা-৯ ও কুমিল্লা-৬ আসনে বিভিন্ন এলাকায় নৌকার জন্য ভোট চেয়ে গণসংযোগ শেষে তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোক্তা, তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন ফারুক সাংবাদিকদের বলেন, বঙ্গবন্ধু নেতৃত্ব দিয়ে এই দেশকে স্বাধীন করেছিলেন। আর নৌকা হলো বঙ্গবন্ধুর প্রতীক। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা টানা দুই মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়ে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে একটি মডেল দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তিনি তথ্যপ্রযুক্তিসহ সকল খাতে উন্নয়নের বিপ্লব ঘটিয়ে বাংলাদেশকে একটি ডিজিটাল দেশে রূপান্তরিত করেছেন। বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল। তাই আমার বিশ্বাস এদেশের মানুষ উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে আবারো নৌকায় ভোট দিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনাকেই প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করবেন।

দেলোয়ার হোসেন ফারুক আরো বলেন, আমি লক্ষ্য করেছি তরুণ প্রজন্মের ভোটাররাও বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ভালোবাসে দেশের উন্নয়নের স্বার্থে নৌকার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। আর তরুণদের আইডল হলো আমাদের সকলের অহংকার জননেত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য সন্তান বিশ্বের অন্যতম তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোক্তা সজীব ওয়াজেদ জয়। তাই আমার বিশ্বাস আগামী নির্বাচনে আবারো নৌকাতেই আস্থা রাখবে তরুণ ভোটাররাসহ এদেশের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ।

ফারুক বলেন, আর আমার প্রিয় লাকসাম-মনোহরগঞ্জবাসী এবং কুমিল্লার সকল মানুষের প্রতি আমার আহবান দেশের উন্নয়নের স্বার্থে স্বাধীনতার প্রতীক নৌকায় আস্থা রাখুন। ৩০ ডিসেম্বর সারাদিন নৌকায় ভোট দিন। আজকে আমি কুমিল্লা-৯ ও কুমিল্লা-৬ আসনে নৌকার জন্য ভোট চেয়েছি সাধারণ মানুষের কাছে। ইনশাআল্লাহ আমাদের সকল নেতাকর্মী তরুণ ভোটারদের সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে কুমিল্লা-৯ আসনে মো.তাজুল ইসলাম এবং কুমিল্লা-৬ আসনে হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার ভাইকে আবারো এমপি হিসেবে বিজয়ী করবে। এখানে ভোটের দিন নৌকার বিপ্লব ঘটবে বলে আমি বিশ্বাস করি।