সোমবার, ২০ মে, ২০১৯

সালেকের স্থলে জাহালম, ৩৩ মামলায় সাজা খাটলেন ভুল আসামি।

SONALISOMOY.COM
ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৯
news-image

গাজীপুরগাজীপুরের কাশিমপুর কে‌ন্দ্রীয় কারাগার-২ থেকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে দুদকের (দুর্নীতি দমন কমিশন) দায়ের করা ৩৩টি মামলার ‘ভুল আসামি’ জাহালম (৩২) কে।

গতকাল ৩ ফেব্রুয়ারি দিনগত রাত ১টার দিকে আদালতের কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে কর্তৃপক্ষ তাকে মুক্তি দেয়। তিনি ভুল আসামি হয়ে প্রায় ৩ বছর বিনা অপরাধে কাশিমপুর কারাগারে ব‌ন্দি ছিলেন। দুদুকের যেসব কর্মকর্তার কারণে বিনা অপরাধে জেল খেটেছেন তাদের বিচার চেয়েছেন জাহালম। এছাড়া বিনা অপরাধে আর কাউকে যেন এভাবে গ্রেপ্তার না করা হয় তারও দাবি জানিয়েছেন জাহালম।

দুদুকের দায়ের করা মামলায় ভুল আসামি জাহালমকে রোববার সব অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেন হাইকোর্টের বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ। এ সময় আদালত তাকে তাৎক্ষণিকভাবে মুক্তির নির্দেশও দেন।

কাশিমপুর কে‌ন্দ্রীয় কারাগার-২ এর জেল সুপার সুব্রত কুমার বালা জাহালমের কারা মুক্তির বিষয়‌টি নি‌শ্চিত করেছেন। জাহালম ২০১৬ সালের ২৭ মে থেকে কাশিমপুর কারাগারে ব‌ন্দি ছিলেন।

জাহালমের ভাই শাহানুর মিয়া বলেন, মি‌ডিয়ার সহযো‌গিতায় দীর্ঘ দিন পর হলেও সত্য প্রকাশ হয়েছে। জাহালমের এই অপুরনীয় ক্ষ‌তির জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চাইবেন বলে তারা জানান। এছাড়া যাদের কারণে ভাইকে বিনা অপরাধে জেল খাটতে হয়েছে তাদের সবার বিচারও চেয়েছেন জাহালমের ভাই।

জাহালম এর বাড়ি টাঙ্গাইলের নাগরপুর থানার ধুবড়িয়া এলাকায়। তার পিতার নাম ইউসুফ আলী। জাহালম একজন পাটকল শ্র‌মিক ছিলেন। সোনালী ব্যাংকের সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির ৩৩টি মামলার মূল আসামি ছিলেন আবু সালেক। কিন্তু তার বদলে বিনা অপরা‌ধে প্রায় ৩ বছর কারাগারে ব‌ন্দি ছিলেন জাহালম। ২০১৬ সালের ৬ ফেব্রুয়া‌রি ভুল আসামি জাহালমকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর থেকে তি‌নি কারাগারে নিরাপরাধ হিসাবে বন্ধি ছিলেন।

[related_post themes="flat" id="181305"]