মঙ্গলবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায় সপ্তম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে বেড়া ভেঙ্গে ধর্ষন করলো তিন বন্ধু।

SONALISOMOY.COM
ফেব্রুয়ারি ৫, ২০১৯
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ   পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার লক্ষ্মীকুন্ডা ইউনিয়নে একস্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক তুষারকে (২০)গ্রেফতার করেছে।

ধর্ষণের শিকার হওয়া ছাত্রীর চাচা বাদী হয়েমামলা করেছেন। মামলা সুত্রে জানা গেছে,ধর্ষিতা উপজেলার একটি বিদ্যালয়ের ৭মশ্রেণিতে পড়ে। স্কুলে যাওয়া-আসার সময় অত্র এলাকার বাদশা প্রামানিকের ছেলে তুষার, তারবন্ধু রনি (১৯) ও শাকিল (২১) তাকে উত্ত্যক্তকরতো। উত্ত্যক্তের বিষয়টি ওই ছাত্রীরঅভিভাবকরা তুষার ও তার অপর দুই বন্ধুরঅভিভাবকদের জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গতশনিবার রাতে তিন বন্ধু মিলে ওই ছাত্রীরশোয়ার ঘরের বেড়া ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে।পরে মুখে গামছা বেঁধে এবং অস্ত্রের মুখে ভয়দেখিয়ে ওই ছাত্রীর বাড়ির পাশে আমিন উদ্দিনবিশ্বাসের আম বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে ফেলেরেখে যায়। পরে রোববার সারাদিন বিষয়টিধামাচাপা দেয়ার জন্য অপরাধীর পরিবারেরপক্ষ থেকে প্রভাব খাটানো হয়।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)বাহাউদ্দিন ফারুকী ধর্ষণের ঘটনাটি নিশ্চিতকরে জানান, ধর্ষিতার চাচা বাদী হয়ে তুষার,রনি ও শাকিলের নামে থানায় ধর্ষণ মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রধানআসামি তুষারকে গ্রেফতার করেছে। ধর্ষিতারপ্রাথমিকভাবে ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে।অপর দুই আসামিকে গ্রেফতারে জোর চেষ্টাচালানো হচ্ছে আছে।