মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯

এসএমই খাতের নারী উদ্যোক্তাদের জন্য নতুন নীতিমালা আগামী মাসে

SONALISOMOY.COM
জুলাই ২৫, ২০১৯
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক: ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প খাতের নারী উদ্যোক্তাদের স্বল্প সুদ ও সহজ শর্তে ঋণ প্রদানের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক নতুন নীতিমালা প্রণয়ন করছে যা আগামী মাসেই ঘোষনা করা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক এসএম রবিউল হাসান।

বুধবার ২৪ জুলাই মতিঝিলের চেম্বার বিল্ডিয়ে বাংলাদেশ ইমপ্লয়ীস ফেডারেশন কনফারেন্স হলে ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের প্রিজম প্রকল্প এবং বিজনেস ইনিশিয়েটিভ লিডিং ডেভলপমেন্ট বিল্ডের যৌথ আয়োজনে ‘Dialogue on Access to Finance for SMEs in Bangladesh- ডায়লগ অন এক্সেস টু ফাইন্যান্স ফর এসএমই’স ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক কর্মশালায় একথা জানান তিনি।

এসময় বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক এসএম রবিউল হাসান বলেন, নারী এসএমই উদ্যোক্তাদের বাদ দিয়ে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভভ না। তাই এসএমই খাত এবং এর নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ তৈরী করতে এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ পাবার সুযোগ তৈরী করতে বাংলাদেশ ব্যাংক কাজ করে যাচ্ছে।

ব্যাংকের এসএমই বিভাগের প্রধানদের উদ্দেশ্যে এসএম রবিউল হাসান বলেন, প্রতিবছর ব্যাংকের প্রতিটি শাখা থেকে অন্তত একজন নারী উদ্যোক্তাকে ঋণ প্রদান করুন।

অনুষ্ঠানে, শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল হালিম বলেন, নতুন শিল্প নীতি প্রণয়নের কাজ চলছে, যেখানে এসএমই খাতের উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হবে যা এসএমই খাতের বিকাশকে গতিশীল করবে।

অনুষ্ঠানে বিসিকের চেয়ারম্যন মোশতাক হাসান জানান, ২০ হাজার একর জমিতে ১শ বেশী শিল্প পার্ক স্থাপন করবে বিসিক। একইসাথে ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালু করাসহ শিল্প প্লট বরাদ্দ এবং সহজ শর্ত ও সহনীয় সুদে ঋণ প্রদানও করা হবে বলেও জানান তিনি।

একই সাথে ঋণ পাবার জন্য ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের প্রজেক্ট প্রোফাইল তৈরীতেও সহায়তা করবে বিসিক। এসময় বাংলাদেশ ব্যাংকের জেনারেল ম্যানেজার লীলা রশিদ বলেন, ব্যাংকের প্রতিটি শাখা থেকে ১০ জনকে এসএমই ঋণ দেবার কথা থাকলেও তা দেয়া হয় না। ফলে উদ্যোক্তারা ব্যবসার প্রসার ঘটাতে পারেন না।

এসময় বিশ্ব ব্যাংকের ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স কর্পোরেশনের প্রাইভেট সেক্টর স্পেশালিস্ট হোসনা ফেরদৌস সুমি বলেন, বিশ্ব ব্যাংক এসএমইর জন্য মার্কেট এক্সেস বাড়াতে একটি পাইলট প্রকল্প হাতে নিয়েছে।

অনুষ্ঠানে এসএমই খাতের উদ্যোক্তারা বলেন, ব্যাংকগুলোতে অনেক সময় প্রয়োজনীয় তথ্য এবং সহযোগীতা পাওয়া যায় না, একই সাথে এসএমই খাতে ঋণের সুদের হার বেশী যা এ খাতের ব্যবসা শুরু এবং প্রসারের প্রধান সমস্যা।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের এসএমই বিভাগের প্রধানরা অংশগ্রহণ করেন।

তারা বলেন, আগের তুলনায় ব্যাংকগুলো এসএমই ঋণ প্রদানের পরিমাণ বাড়িয়েছে। তবে ঋণ গ্রহীতাদের নিয়মের মধ্যে আনতে হবে এবং নজরদারি জোরদার করতে হবে যাতে এমএমই খাতের ঋণ অন্য খাতে না ব্যবহার হয়।

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিল্ডের কনসালটেন্ট মেহরুনা ইসলাম চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে, দেশের সবগুলো ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের এসএমই খাতের প্রধানদের ফোন এবং ইমেইল নম্বরসহ একটি ডিরেক্টরি প্রকাশ করা হয়। একইসাথে এসএমই খাতের উন্নয়নে একযোগে কাজ করার জন্য প্রিজম এবং বিল্ডের সমন্বয়ে একটি যৌথ প্লাটফর্মেরও উদ্বোধন করা হয়।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, প্রিজম প্রকল্পের টিম লিডার আলী সাবেত, চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি ও বিল্ডের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম এবং বিল্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফেরদৌস আরা বেগম।