রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১

বাগমারায় করোনা উপসর্গ নিয়ে নারীর মৃত্যু

SONALISOMOY.COM
জুন ৪, ২০২১
news-image

বাগমারা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে রেহেনা বেগম নামের এক নারীর (৫০) মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই মহিলা সহ তার স্বামী আকরাম হোসেন জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধিন রাত সাড়ে ১০টার দিকে করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রেহেনা বেগম। তার স্বামীও একই উপসর্গ নিয়ে ওই ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
তাদের বাড়ি উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের মেন্দিপাড়া গ্রামে। তারা স্বামী-স্ত্রী উভয়ে জ্বর ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। তাঁদের মাঝে করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় সন্দেহ ভাজন রোগী হিসেবে করোনা ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা দেয়া শুরু করেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকগণ। রাত সাড়ে ১০টার দিকে তীব্র শ্বাসকষ্টে সেখানেই ওই নারী মারা যান। তবে তাঁর স্বামী সুস্থ রয়েছেন।
জানাগেছে, কয়েক দিন ধরে তাঁরা জ্বর ও শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগছিলেন। বাড়িতে চিকিৎসা নেওয়ার পরও অবস্থার সুস্থ না হওয়ায় স্বামী-স্ত্রী উভয়কে বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তবে স্বামীর শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে ভালো বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা।
হাসপাতাল সূত্রে আরো জানাগেছে, বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের করোনা ওয়ার্ডে আরো দুইজন করোনা পজেটিভ রোগীর চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ গোলাম রাব্বানী বলেন, গত বছর চেয়ে এবার করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের হার বেশি। গত বছর রোগীর বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়েছিল। সে কারনে তাদেরকে স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে আসতে হয়নি। গত বছরই করোনা রেগীদের জন্য আলাদা করে আইসোলেশন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে। এটি করোনা ওয়ার্ড হিসেবে পরিচিত। সন্দেহভাজন রোগীদের আলাদা ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়।